ধামরাইয়ে গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় কাজী গ্রেপ্তার

  

পিএনএস ডেস্ক : ঢাকার ধামরাইয়ে এক গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ইউসুফ আলী নামে এক বিবাহ রেজিস্ট্রারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলার ধামরাই পৌরসভার চন্দ্রাইল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে সকালে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা (নং-৫) দায়ের করেন।

গ্রেপ্তার ইউসুফ আলী (৪৫) ধামরাই পৌর এলাকার নতুন দক্ষিণ পাড়া মহল্লার আমির হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া। তিনি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা থানার হাঁপানিয়া গ্রামের মৃত লাল মাহমুদের ছেলে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, প্রায় এক মাস আগে নিজের বিয়ের কাবিনের অর্থের পরিমাণ এক লাখ থেকে তিন লাখ টাকা বাড়ানোর কথা বলে তাকে কাজী তার অফিসে ডেকে নেন কাজী ইউসুফ আলী। ওই গৃহবধূ তার অফিসে গেলে কাগজ অফিসে নেই জানিয়ে তাকে পৌর এলাকার ৮নং দক্ষিণ পাড়ার নিজ ভাড়া বাসায় নিয়ে যান ইউসুফ। এসময় চার তলায় কাজীর ফ্ল্যাটে নিয়ে তাকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। তবে ওই সময় বাসায় কেউ ছিল না। পরে আজ সকালে ধামরাই থানায় মামলা দায়ের করেন ওই গৃহবধূ।

ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সায়েদুজ্জামান বলেন, ‘ধর্ষণের ঘটনা মীমাংসার জন্য স্থানীয়ভাবে অনেকবার বসা হয়েছিল। মীমাংসার আশ্বাসে এতদিন ওই গৃহবধূ থানায় অভিযোগ করেননি। অবশেষে গতকাল রাতে তিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করলে আজ সকালে মামলা নথিভুক্ত করা হয়। পরে দুপুরে অভিযুক্ত রেজিস্ট্রার কাজী ইউসুফকে পৌর এলাকার চন্দ্রাইল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। আগামীকাল শুক্রবার তাকে ঢাকার মুখ্য বিচারিক আদালতে পাঠানো হবে।’

এছাড়া ভুক্তভোগীকে বৃহস্পতিবার সকালেই স্বাস্থ‌্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান এসআই সায়েদুজ্জামান।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন