আগামী মাস থেকেই বেসরকারিভাবে টিকা বিক্রি করবে বেক্সিমকো

  

পিএনএস ডেস্ক : চলমান বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে দেশের বাজারে বেসরকারিভাবেও করোনাভাইরাসের টিকা বিক্রি শুরু করতে পারে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস। এমন খবর দিয়েছে রয়টার্স।

বেক্সিমকোর চিফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) রাব্বুর রেজার বরাত দিয়ে মঙ্গলবার তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সরকারের টিকাদান কর্মসূচিতে দেওয়ার বাইরে বাজারে বিক্রির জন্য ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে ৩০ লাখ ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা কিনছে এই ফার্মাসিউটিক্যালস। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রেজেনেকার এই টিকার প্রতি ডোজের জন্য সেরাম ইনস্টিটিউটকে তাদের দিতে হবে ৮ ডলার করে।

এই দাম বাংলাদেশ সরকারকে দেওয়ার জন্য সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে বেক্সিমকো যে টিকা আনছে, তার দামের প্রায় দ্বিগুণ।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, বাংলাদেশ সরকারের গণ টিকাদান কর্মসূচির জন্য বছরের প্রথমার্ধে প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ টিকা সরবরাহ করবে বেক্সিমকো।

রাব্বুর রেজা মঙ্গলবার রয়টার্সকে বলেছেন, এই মাসের শেষ দিকেই সরকার ও বাজারে বিক্রির জন্য টিকা সরবরাহ শুরু করবে সেরাম ইনস্টিটিউট।

প্রতি ব্যক্তিকে করোনাভাইরাসের এই টিকার দুটি ডোজ নিতে হবে। মাঝে কয়েক সপ্তাহের বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে।

রাব্বুর রেজার বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী মাস থেকেই বাংলাদেশের বাজারে বেক্সিমকো টিকা বিক্রি শুরু করতে পারে। প্রতি ডোজের জন্য দাম রাখা হবে এক হাজার ১২৫ টাকার মতো (১৩.২৭ ডলার) করে। এরইমধ্যে তারা সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে ১০ লাখ ডোজ টিকার জন্য চুক্তি করেছে, এই পরিমাণ আরও ২০ লাখ ডোজ বাড়তে পারে।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন