প্রয়োজনে সবার আগে টিকা নেব: অর্থমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, ‘টিকা আসাটা ভালো খবর। আমাদের অনেকের বয়স বেশি হয়েছে। সবাই টিকা পেয়ে গেলে ভালো অনুভব হবে। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে যে প্রচেষ্টা চলছে, তা এগিয়ে নিতে পারব। এতে সফলতার স্বাক্ষর রাখতে পারব বলে বিশ্বাস করি।’

ক্রয় কমিটির সভা শেষে অনলাইনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় একজন সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি টিকা নেব। অবশ্যই নেব। প্রয়োজনে সবার আগে টিকা নেব। আমার বয়স হয়েছে, আমার টিকা দরকার। সরকার যেটা আনবে, সেই টিকাই নেব।’

উল্লেখ্য, উপহার হিসেবে ২০ লাখ করোনার টিকা আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের হাতে তুলে দিয়েছে ভারত। আজ বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টার দিকে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের হাতে পৃথকভাবে করোনার টিকার দুটি বক্স তুলে দেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী।

উপহারের টিকার বাইরে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট ও বেক্সিমকো ফার্মার চুক্তি রয়েছে। অনলাইনে নিবন্ধন ছাড়া কাউকে করোনার এই টিকা দেবে না বাংলাদেশ সরকার। রাজধানীর চারটি হাসপাতালে এ মাসের শেষ দিকে টিকাদানের মহড়া বা ড্রাই রান হবে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দেশব্যাপী টিকা কার্যক্রম শুরু করার প্রস্তুতি নিচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

ক্রয় কমিটির গতকালের সভায় সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে ১ হাজার ২৭৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩ কোটি ডোজ করোনা টিকা কেনার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

এ ছাড়া বৈঠকে আরও কয়েকটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সভায় কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবেরা অংশ নেন।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন