‘প্রধানমন্ত্রী প্রতিটি গৃহহীন অসহায় পরিবারের জন্য ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছেন’

  

পিএনএস, গাইবান্ধা প্রতিনিধি : জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া বলেছেন- দু:স্থ, অসহায় ও গৃহহীনদের মাথা গোজার ঠাঁই একটি পরিপূর্ণ ঘর উপহার হিসেবে তাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশের গৃহহীন প্রতিটি পরিবারকে থাকার জন্য তাদের স্বপ্নের নীড় তৈরি করে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর এ উদ্যোগকে সফল করতে সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি। তিনি বলেন, এ কাজে প্রতাজন্ত্রের কর্মচারী, জনপ্রতিনিধি ও বিত্তবানরা এগিয়ে এলে দেশে একটি পরিবারও গৃহহীন থাকবে না।

শনিবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে দেশের ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারগুলোকে জমি ও গৃহ প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধনের পর ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে সুবিধাভোগী ৭৫ জনকে ঘরের চাবি ও জমির দলিল হস্তান্তরের সময় তিনি এসব কথা বলেন। ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রায়হান দোলন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ, কঞ্চিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লিটন মিয়া। এসময় ফুলছড়ি উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সের পর গাইবান্ধা সদর উপজেলা চত্বরে ১০৫ জন গৃহহীন ও ভূমিহীন অসহায় মানুষের মাঝে প্রধাণমন্ত্রীর উপহার জমির দলিল ও ঘরের চাবী তুলে দেন জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল মতিন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুর রাফিউল আলমের সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক, সদর উপজেলা আ’লীগ সভাপতি রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।

উল্লেখ্য, মুজিববর্ষ উপলক্ষে গাইবান্ধা জেলায় ১১২৬ জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান প্রদান করা হয়। এরমধ্যে গাইবান্ধা সদর উপজেলায় ১০৫টি, সুন্দরগঞ্জে ২৭২টি, গোবিন্দগঞ্জে ১২০টি, সাদুল্যাপুরে ১৭৯টি, ফুলছড়িতে ৭৫ টি, সাঘাটায় ৩৫টি ও পলাশবাড়ীতে ৬০টি গৃহ পরিবারের মধ্যে এসব ঘর হস্তান্তর করা হয়। প্রতিটি ঘর নির্মাণের জন্য ব্যয় হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা।

পিএনএস/এসআইআর

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন