দেশের প্রথম নারী বনরক্ষী মিলি

  

পিএনএস ডেস্ক : সময়ের সঙ্গে সব ক্ষেত্রে নারীরা নিজেদের অবস্থান তৈরি করে নিচ্ছেন। বিভিন্ন গুরত্বপূর্ণ স্থানও দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন নারীরা। এমনই একজন নারী দিলরুবা আক্তার মিলি। বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ চুকিয়ে উদ্যোগ নেন বনরক্ষী হওয়ার। সেই উদ্যোগে সফল হয়েছেন তিনি। দেশের প্রথম নারী বনরক্ষীর তালিকায় নাম লেখান তিনি।

এই জার্নির বর্ণনা করে মিলি বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই বনজঙ্গল নিয়ে আগ্রহ। এক সময় মনে হলো পুরুষ বনরক্ষী হিসেবে কাজ করতে পারলে আমি পারব না কেন? সেই চিন্তাভাবনা থেকেই পড়াশোনা শেষ করে বনরক্ষী হওয়ার উদ্যোগ নিই। পরিবার-পরিজনের সহযোগিতায় সামনে এগুতে থাকি। এরপর বনরক্ষী হিসেবে লিখিত পরীক্ষা ও ভাইভা শেষ করে রাজশাহী পুলিশ একাডেমি থেকে প্রশিক্ষণ শেষ করি।’

মিলির এই চলার পথ মোটেও মসৃণ ছিল না। বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ পেশায় নারীসংখ্যা শূন্যের দিকে হওয়ায় বেশ প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হয়েছে। প্রশিক্ষণের আগে ভাইভা দিতে হয়। ২০৩ জন পুরুষের মধ্যে আমি একমাত্র নারী হিসেবে যোগ দিই। প্রথমদিকে সমস্যা হলেও পরে তা মোকাবেলা করে এগিয়ে যাই।’

২০১৬ সালে বনরক্ষী হিসেবে যোগ দেন মিলি। তখন থেকে ঢাকার জাতীয় উদ্ভিদ উদ্যানে কর্মরত রয়েছেন তিনি।

পিএনএস/এসআইআর

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন