যাদের ময়লা তাদের গেটেই রেখে গেলেন মেয়র আতিক!

  

পিএনএস ডেস্ক : বর্জ্য রাখার জন্য স্থান না রেখে মিরপুর-৩ নম্বর সেকশনে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য একটি আবাসন প্রকল্প তৈরি করা হয়। ফলে ওই প্রকল্প এলাকার গৃহস্থালীর বর্জ্য প্রকল্পের সামনের রাস্তায় ফেলে আসতেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এতে ক্ষুব্ধ হন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সোমবার (৮ মার্চ) প্রকল্প এলাকার ওই সব বর্জ্য সড়কের পাশে ছড়ানো ছিটানো পড়ে থাকতে দেখতে পান মেয়র। তিনি সেগুলো প্রকল্পের মূল ফটকে ফেলে আসতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। পরে সংস্থার বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তারা যন্ত্র দিয়ে সেই বর্জ্য সংগ্রহ করে প্রকল্পটির মূল ফটকে রেখে আসেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, সরকারি কর্মকর্তাদের আবাসনে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার কোনো ব্যবস্থা নেই। দীর্ঘদিন ধরে তারা এই বর্জ্য রাস্তায় ফেলছেন। এতে নগরের পরিবেশ নোংরা হচ্ছে।

সকাল সাড়ে সাতটার দিকে রাজধানীর পল্লবী এলাকার সাগুফতা খাল পরিদর্শন করেন ডিএনসিসির মেয়র। পরে তার উপস্থিতিতে ফগার ও স্পে মেশিন দিয়ে ওষুধ ছিটিয়ে কিউলেক্স মশকনিধনের সমন্বিত অভিযান শুরু হয়।

মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, এই আবাসনে ৬শ’টির বেশি পরিবার বাস করে। কিন্তু সরকারের যে সংস্থা এই আবাসন করেছে, তারা বর্জ্য রাখার জন্য কোনও জায়গায় রাখেনি। এখন তারা জায়গা দিলে এসটিএস নির্মাণ করে দেবে ডিএনসিসি।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন