কৌশলগত কারণে বিদেশি অতিথিদের নাম বলছে না আওয়ামী লীগ

  


পিএনএস ডেস্ক: আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে বেশ কিছু দেশের রাজনৈতিক দলের নেতারা আসছেন। ইতোমধ্যে কয়েকটি দেশের নেতাদের আসার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে বলে আওয়ামী লীগ নেতারা জানিয়েছেন।

তবে নিরাপত্তাসহ কৌশলগত কারণে কোন দেশের কোনা দলের নেতারা আসছেন সেটা এখনই প্রকাশ করা হচ্ছে না জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের ওই নেতারা।

এদিকে আওয়ামী লীগের একটি সূত্র জানায়, ইতোমধ্যে ভারত, চীন এবং রাশিয়া থেকে ওই সব দেশের রাজনৈতিক দলের নেতাদের আসার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে কোন দলের কে আসছেন সেটা কেউ জানাতে চাচ্ছেন না।

আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কর্ণেল (অব.) ফারুক খান গণমাধ্যমকে জানান, বেশ কয়েকটি দেশের রাজনৈতিক দলের নেতারা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে কৌশলগত কারণে আমরা এখনই তাদের নাম বলছি না। আগামী ২০ অক্টোবরের পর তাদের নাম জানানো হবে।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সংশ্লিষ্ট এক নেতা বলেন, বিদেশি কারা আসছেন এখনই জানানো হলে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। বাইরে থেকে তাদেরকে বিভ্রান্ত করা হতে পারে, নিরাপত্তার হুমকি দেওয়া হতে পারে। আওয়ামী লীগের সম্মেলনে তারা যাতে না আসে সে জন্য এ ধরণের কিছু সমস্যা তৈরির চেষ্টা করা হতে পারে। এ সব কারণে এখনই নাম প্রকাশ করা হচ্ছে না।

আওয়ামী লীগের সূত্রগুলো জানায়, ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি), বিরোধী দল জাতীয় কংগ্রেস, সিপিআই(এম), সিপিআই, তৃণমুল কংগ্রেস, রাশিয়ার ইউনাইটেড রাশিয়া, রিপাবলিকান পার্টি অব রাশিয়া, চীনের কমিউনিস্ট পার্টিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এসব দেশসহ বিশ্বের ১৪টি দেশের ৪৫ জন নেতাকে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছিলো।

এদিকে কলকাতা থেকে বাংলানিউজের সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট জানান, ভারতের জাতীয় কংগ্রেস, পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেস ও সিপিএম নেতারা আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে অতিথি হিসেবে আসছেন। এর মধ্যে তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল পাঠাচ্ছে জাতীয় কংগ্রেস। এই প্রতিনিধি দলে থাকছেন কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা ও প্রাক্তনমন্ত্রী গোলাম নবী আজাদ, প্রদীপ ভট্টাচার্য।

আগামী ২২ ও ২৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দেশের প্রাচীনতম রাজনৈতিক দল ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ২০ তম ত্রিবার্ষিক জাতীয় সম্মেলন। এই সম্মেলনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক দলগুলোকে গত সেপ্টেম্বর মাসে আমন্ত্রণ জানানো হয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফ দলের পক্ষ থেকে তাদের আমন্ত্রণ জানান।

বিদেশি অতিথিদের আমন্ত্রণপত্র পাঠানো ও তাদের সঙ্গে যোগাযোগের দায়িত্ব পালন করছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কর্ণেল (অব.) ফারুক খান এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।
তবে বিদেশি অতিথি হিসেবে কারা আসছেন সে বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে শাহরিয়ার আলম এ ব্যাপারে কিছু জানাতে চাননি।

বিদেশি কোন কোন রাজনৈতিক দলের কোন কোন নেতা এখন পর্যন্ত আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জানতে চাওয়া হলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সম্মেলন অভ্যর্থনা উপ-কমিটির আহ্বায়ক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সোমবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমকে বলেন, এখনই জানানো হবে না। দুই এক দিন পর আমরা একবারে জানাবো।

এদিকে বিদেশি অতিথি যারা আসবেন তাদের আসা-যাওয়ার জন্য বিমানের বিজনেস ক্লাসে টিকিট, থাকা, খাওয়া সব কিছুই আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে করা হবে। বিদেশি এই অতিথিদের জাতীয় স্মৃতিসৌধ, জাতীয় সংসদ ভবন, বঙ্গবন্ধু জাদুঘরসহ গুরুত্বপূর্ণ কিছু স্থাপনা ঘুরিয়ে দেখানো হবে।

এ বিষয়ে ফারুক খান বলেন, বিদেশিদের আসা-যাওয়ার সব খরচই আমরা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বহন করবো। সূত্র: অনলাইন

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech