পিআইও ও ছাত্রলীগ নেতার পাল্টাপাল্টি মামলা

  

পিএনএস, গাইবান্ধা : জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকার ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক ছামিউল ইসলাম সামু সুন্দরগঞ্জ থানায় পাল্টাপাল্টি দুটি মামলা দায়ের করেছেন।

এর মধ্যে চাঁদাদাবী ও মারপিটের অভিযোগে পিআইও নুরুন্নবী সরকার বাদি হয়ে ছাত্রলীগ নেতা সামুসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে ও ১২ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণ ও মারপিটের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা সামু বাদি হয়ে পিআইও নুরুন্নবী সরকারের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেন।

বুধবার (৩০ নভেম্বর) রাত ১০টার দিকে প্রথমে পিআইও নুরুন্নবী (মামলা নং ৩৩) ও রাত ১১টার দিকে ছাত্রলীগ নেতা সামু (মামলা নং ৩৪) মামলা দায়ের করেন।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিয়ার রহমান পাল্টাপাল্টি মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ছামিউল ইসলাম সামুসহ অন্য আসামিরা পিআইও নুরুন্নবীর কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। চাঁদার টাকা না পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে সামুর নেতৃত্বে অন্য অসামিরা অফিস কার্যালয়ে গিয়ে নুরুন্নবীকে গালিগালাজ করে মারপিট করে। এ অভিযোগে নুরুন্নবী ছাত্রলীগ নেতা সামুসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

তিনি আরও জানান, ৩টি ব্রিজের কাজ দেওয়ার কথা বলে পিআইও নুরুন্নবী সামুর কাছে ১২ লক্ষ টাকা নেয়। এরপর ব্রিজের কাজ না পাওয়ায় নুরুন্নবীর কাছে টাকা ফেরত চান সামু। মঙ্গলবার দুপুরে টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে নুরুন্নবী সরকার তাকে মারপিট করেন। ঘুষ গ্রহণ ও মারপিটের অভিযোগে সামু নুরুন্নবীর বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলা দুটি বর্তমানে তদন্তধীন রয়েছে।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা সামু বলেন, ঘুষের টাকা ফেরত চাওয়ায় মিথ্যা অভিযোগে আমাকেসহ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন পিআইও নুরুন্নবী।

তবে এ বিষয়ে পিআইও নুরন্নবী সরকারের মুঠোফোনে একাধিবার ফোন দিলেও ফোন রিসিভ করেনি।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech