লক্ষ্মীপুরে বিএনপি কার্যালয়ে হামলা-ভাঙচুর

  


পিএনএস, লক্ষীপুর: লক্ষ্মীপুরে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে ভাঙচুর করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় ছাত্রদলের অন্তত ১২ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।
শুক্রবার রাত ৭টার দিকে শহরের কলেজ রোডস্থ জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
আহতরা হলেন, ছাত্রদল কর্মী মোরশেদ আলম, তারেকুর রহমান হাবিব, মুরাদ, মামুন, দিপু, আবদুল, কাইউম, মোস্তাফিজ, রিমন, নিজামসহ অন্তত ১২ জন।
আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে র্যাব ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় শহরে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, জেলা বিএনপির কার্যালয়ে ছাত্রদলের ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিটি গঠন অনুষ্ঠান চলছিল। এ সময় কার্যালয়ের সামনে ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মীর সাথে ছাত্রদল কর্মীদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ছাত্রদলের নেতারা ধাওয়া দিয়ে ছাত্রলীগের এক কর্মীকে মারধর করে।
পরে ঘটনাটি ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মাঝে জানাজানি হলে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী সংঘবদ্ধ হয়ে জেলা বিএনপি’র কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে।
জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হারুনুর রশিদ হারুন অভিযোগ করে বলেন, দলীয় কার্যালয়ে ভাঙ্গাখা ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি গঠন অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগ অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় কার্যালয়ের ২০টি চেয়ার ভাঙচুর করে তারা। হামলায় ছাত্রদলের অন্তত ১২ নেতা-কর্মীর আহত হয়েছেন।
এদিকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, জাতীয় সংসদের সফলতার ৩ বছর পূর্তি উপলক্ষে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে শনিবার লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগের আনন্দ র্যালী অনুষ্ঠিত হবে। ওই অনুষ্ঠানকে বানচাল করতে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা নিজেরা কার্যালয় ভাঙচুর করে নাটক সাজিয়েছে।
এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর থানার তদন্ত কর্মকর্তা এ কে এম ফজলুল হক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। যে কোনো অর্প্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech