‘বিএনপি নেতাদের ওপর হামলা রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ব্যক্তির নির্দেশে’

  


পিএনএস: রাঙ্গুনিয়ায় বিএনপি মহাসচিবসহ নেতাদের ওপর আওয়ামী লীগের সশস্ত্র ক্যাডারদের আকস্মিক আক্রমণ রাষ্ট্রের সবোর্চ্চ ব্যাক্তির নির্দেশে হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

সোমবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় পল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, রাজনৈতিক ভদ্রতার নিয়ম-কানুন মানা আওয়ামী লীগের ঐতিহ্যে নেই। আওয়ামী লীগ সন্ত্রাস আর গুন্ডামীকেই নিজেদের জীবনে-আচরণে-কর্মক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছে। আওয়ামী-রাষ্ট্র সমালোচনা ও বিরোধী দলের গণতন্ত্রস্বীকৃত তৎপরতাকে স্তব্ধ করে দেয়া বাধ্যতামূলক কর্মসূচি বলে মনে করে।

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, গাড়ীবহরের ওপর সন্ত্রাসীরা বৃষ্টির মতো ইটপাটকেল নিক্ষিপ্ত করতে থাকে, ধারালো অস্ত্র নিয়ে গাড়ীগুলোর ওপর হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। এতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ তাঁর সফরসঙ্গী বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব:) রুহুল আলম চৌধুরী, বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) মাহবুবের রহমান শামীম, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা: মীর ফাওয়াজ হোসেন শুভ, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বকরসহ প্রায় ১৫ জন আহত হন।

শেখ হাসিনার দু:শাসনের প্রকোপ এখন বিপজ্জনক রুপ ধারণ করেছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, প্রকৃত গণতন্ত্র পূণরুজ্জীবনের জন্য বিএনপিসহ বিরোধী দলসমূহ, বিশিষ্ট নাগরিক সমাজ, নাগরিক স্বাধীনতায় বিশ্বাসী ব্যক্তিবর্গ, মুক্তচিন্তার লেখক, বিবেকবান সাংবাদিক সবাই শেখ হাসিনার চরম রাজনৈতিক আক্রমণের শিকার। নির্বাচন আসার আগেই গুন্ডামী ও সন্ত্রাসকে যেভাবে প্রজনণ করা হচ্ছে তাতে আগামী জাতীয় নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনে হলে অবাধ-সুষ্ঠু-শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানে কী শোচনীয় বিপর্যয় ঘটবে তা সহজেই অনুমেয়।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech