কাঁদলেন খালেদা জিয়া-তারেক রহমান

  

পিএনএস ডেস্ক:চোখ ও পায়ের চিকিৎসা এবং পুত্র-নাতনীদের সাথে সময় কাটাতে লন্ডনে পৌঁছেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টার কিছু আগে তিনি লন্ডন গিয়ে পৌঁছান।

বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানান লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ দলের বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতা।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, লন্ডনে খালেদা জিয়ার এক সফরসঙ্গী জানিয়েছেন, প্রায় ২ বছর পর লন্ডনে গেলেন খালেদা জিয়া। লন্ডনে পুরো সময়টা তিনি তারেক রহমানের বাসায় অবস্থান করবেন। রোববার বাসায় যাওয়ার পর পরই এক আবেগগণ পরিবেশের সৃষ্টি হয়। তারেক রহমানসহ তার স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান, মেয়ে জাইমা রহমান ছাড়াও প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শামিলা রহমান সিঁথি, তার দুই মেয়ে জাহিয়া রহমান ও জাফিয়া রহমান খালেদাকে কাছে পেয়ে অশ্রু ধরে রাখতে পারেননি। এসময় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াও অশ্রুস্বজল হয়ে পড়েন বলে জানিয়েছে সূত্রটি।

সর্বশেষ ২০১৫ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর চিকিৎসার জন্য লন্ডনে গিয়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন। সেখানে বড় ছেলে তারেক রহমানসহ তার পরিবার এবং প্রয়াত ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী ও মেয়েদের নিয়ে ঈদ উদযাপন করেন তিনি। এর আগে ২০১১ সালে যুক্তরাষ্ট্র ঘুরে দেশে ফেরার পথে বড় ছেলে তারেক রহমানকে দেখতে লন্ডনে গিয়েছিলেন খালেদা জিয়া।

এর আগে গতাকাল শনিবার সন্ধ্যার পর এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ই কে ৫৮৭ ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রওনা হন বেগম খালেদা জিয়া।

যাত্রাপথে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে যাত্রাবিরতি করেন তিনি। স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৩৫ মিনিটে দুবাইয়ের টার্মিনাল থ্রি বিমানবন্দরে অবতরণ করেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

এ সময় সংযুক্ত আরব আমিরাত বিএনপির সিনিয়র নেতারা বিমানবন্দরে উপস্থিত হন এবং বিএনপি নেত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎ ও বিশ্রাম শেষে খালেদা জিয়া লন্ডনের উদ্দেশে রওনা হন।


পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech