‘আ.লীগ যখন ক্ষতিগ্রস্ত তখন রোহিঙ্গাদের পাশে হাসিনা’

  

পিএনএস ডেস্ক: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘রাজনৈতিকভাবে আওয়ামী লীগ যখন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তখন রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

মঙ্গলবার বিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরাম আয়োজিত ‘রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের অবস্থান’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, যদি রাজনৈতিক অবস্থান থেকে দেশের মানুষকে বোকা বানিয়ে রোহিঙ্গা ইস্যুতে অবস্থান নিয়ে থাকেন, তবে এর ফল শুভ হবে না।

আমীর খসরু বলেন, আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলতে পারছেন না রোহিঙ্গা গণহত্যার বিচার আন্তর্জাতিক আদালতে হবে কি না?

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের অবস্থান অস্পষ্ট দাবি করে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘এটি বাংলাদেশের জন্য স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তার প্রশ্ন। সুতরাং রাজনৈতিক অবস্থান পরিষ্কার করতে হবে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকারের অবস্থান আমি মনে করি পরিষ্কার নয়।’

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিএনপি রাজনীতি করছে আওয়ামী লীগ নেতাদের এমন সমালোচনার জবাবে খসরু বলেন, ‘রোহিঙ্গা ইস্যু একটি বড় রাজনৈতিক বিষয়, এটা নিয়ে রাজনীতি হবেই।’

তিনি আরো বলেন, ‘শুরুতে রোহিঙ্গাদের পুশব্যাক করা হলো। তখন এটাই ছিল বাংলাদেশের অফিসিয়াল অবস্থান। তখন রোহিঙ্গাদের সন্ত্রাসী বলা হলো, কেউ কেউ মাদক পাচারকারী বলল।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, বিশ্ব নেতারা যখন আসছেন, ত্রাণ আসছে, বিশ্ব জাগ্রত। বিবেকবান মানুষের অবস্থান যখন এটাকে জাতি নিধন এবং গণহত্যা বলা শুরু করল। দেশের সব মানুষ যখন মানবতার পক্ষে, দেশ ও দেশের বাইরে চাপ শুরু হলো, তখন সরকারের সুরে পরিবর্তন এসেছে।

খসরু বলেন, এ অঞ্চলের দেশগুলোর অবস্থান দেখেছি। সব দেশই নৈতিকতার দিক থেকে হেরে গেছে। যারা সু চির পক্ষে অবস্থান নিয়েছে তারা হেরে গেছে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদষ্টো সুকোমল বড়ুয়া, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমত উল্লাহ, খালেদা ইয়াসমিন, বাগেরহাট জেলা বিএনপির উপদেষ্টা ড.কাজী মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech