সেনাকুঞ্জে যায়নি বিএনপির কোনো প্রতিনিধিদল

  


পিএনএস ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে সেনাকুঞ্জে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে গত কয়েকবছর ধরে যোগ দেননি। তবে বিএনপির প্রতিনিধিদল সেখানে গিয়ে থাকেন। বিএনপির কারো যোগ না দেয়ার ঘটনা এই প্রথম।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সেনাকুঞ্জের মঙ্গলবারের এই অনুষ্ঠানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক সেনাপ্রধান লে. জেনারেল মাহবুবুর রহমান ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবিহউদ্দিন আহমেদকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুর পর্যন্ত খালেদা জিয়া ছাড়া বাকি তিনজনের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগদানের বিষয়টি অনেকটা নিশ্চিত ছিল। তবে দলের শীর্ষ নেতার নির্দেশে শেষ মুহূর্তে অনুষ্ঠানে যোগদানে বিরত থাকেন তারা।

সশস্ত্র বাহিনী দিবসটিকে কেন্দ্র বিভিন্ন আয়োজন করে থাকে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী।এ দিন বিকেলে ক্যান্টনমেন্টের সেনাকুঞ্জে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, ক্ষমতাসীন দল ও বিরোধীদলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা।

এর আগে ২০১০ সালে সর্বশেষ খালেদা জিয়া সশস্ত্র বাহিনী দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নেন। তার আগের দু’বছরও অংশগ্রহণ করেন বিএনপির চেয়ারপারসন। ২০০৮ সালে সেনাকুঞ্জে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর সঙ্গে খালেদা জিয়ার সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়। ওই সময় তাদের মধ্যে আলোচনা হয়। অনুষ্ঠান থেকে বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের শেখ হাসিনা দ্রুত নির্বাচনের বিষয়ে বলেছিলেন। আর খালেদা জিয়ার ভাষ্য ছিল,‘কুশল বিনিময় হলো। জেলের মধ্যে কেমন ছিলাম, সে বিষয়ে কথা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য লে.জে. অব. মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সেনাকুঞ্জে যায়। ওই সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাদের কুশল বিনিময় হয়েছিল।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech