জিয়াউর রহমান এর ৮২ তম জন্মবার্ষিকীতে জাসাসের আয়োজনে আত্মার মাগফেরাত কামনা - রাজনীতি - Premier News Syndicate Limited (PNS)

জিয়াউর রহমান এর ৮২ তম জন্মবার্ষিকীতে জাসাসের আয়োজনে আত্মার মাগফেরাত কামনা

  

পিএনএস : বিএনপি’র জাতীয় স্থায়ী কমিটি’র সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন জাসাসকে ধন্যবাদ জানিয়ে রাখাল রাজা, মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর ৮২ তম জন্মবার্ষিকীতে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে-আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, সৈনিক জীবনে জিয়া ছিলেন সফল। তিনি ১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে নিজে ১ নং সেক্টরে যুদ্ধ করে পরে জেড ফোর্স গঠন করে যুদ্ধ করে দেশকে শত্রমুক্ত করে স্বাধীনতা এনেছিলেন।

আবার ১৯৭৫ এর ৭ নভেম্বর জাতির সংকটে সিপাহী-জনতা তাকে সামনে আনলে তিনি আবারও সংকট মোকাবেলা করে এই দেশ ও জাতিকে সঠিক দিক-নির্দেশনা দিয়েছিলেন। তিনি এতটাই সফল রাষ্ট্রনায়ক ছিলেন যে, তার মৃত্যুতে জানাযায় যতো লোক হয়েছিল আর কোন মুসলিম রাষ্ট্রপতির জানাযায় এতো লোক হয়নি ।

অন্যদিকে আজ যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার দাবিদার বলে দাবি করেন, তাদের হাতে ৪টি বাদে সব পত্রিকা বন্ধ হয়েছিল, সব দল নিষিদ্ধ করে এক দল ‘বাকশাল’ কায়েম করেছিল। দেশে দুর্ভিক্ষ এনেছিল। জিয়াউর রহমান বাকশালের বদলে দেশে ‘বহুদলীয় গণতন্ত্র’ এনেছিলেন-যার মাধ্যমে আওয়ামীলীগও আবার আওয়ামীলীগ নাম নিয়ে রাজনীতি করার সুযোগ পায়।

তিনি দেশের রাজনীতি, সমাজনীতি, অর্থনীতিতে আমুল পরিবর্তন এনেছিলেন বলেই দেশ ‘তলাবিহীন ঝুড়ি’র অপবাদ থেকে মুক্ত হয়ে ইমাজিং টাইগারে পরিণত হয়েছিল। জিয়াউর রহমানের সুনাম দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে পড়েছিল।

আজ আবারও সেই আওয়ামীলীগের হাতেই দেশের মানুষের নিরাপত্তা নেই, গণতন্ত্র নিষ্পেষিত, ভোটাধিকার পদদলিত। শহীদ জিয়ার যোগ্য উত্তরসুরি বেগম জিয়া দেশের মানুষের ভোটাধিকার, গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠায় আজ যখন অবিরাম সংগ্রাম করে যাচ্ছেন, তখন বর্তমান প্রেক্ষাপটে বর্তমান সরকার বিএনপিকে পাশ কাটিয়ে নির্বাচন করার পায়তারা করছেন এবং বেগম খালেদা জিয়াকে আবার ২০১৪ সালের নির্বাচনের মতো নির্বাচন থেকে দুরে রাখার ষড়যন্ত্র করছেন সরকার। কিন্তু এবার সফল হতে পারবেন না।

বেগম খালেদা জিয়া জনগণকে সাথে নিয়ে নির্বাচন কালীন সরকার প্রতিষ্ঠিত করে জনগণের ভোটাধিকার এনে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে বিজয়লাভ করবেন ইনশাআল্লাহ।

তিনি আজ বিকালে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি’র মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা-জাসাস এর আয়োজনে বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর ৮২ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।

উক্ত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সভাপতিত্ব করেন জাসাস এর সভাপতি ড. মামুন আহমেদ এবং সঞ্চালনা করেন জাসাস এর সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন রোকন।

এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সন উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব গাজী মাজহারুল আনোয়ার, বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব-সাবেক সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি’র সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব ও সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাড. সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপি’র সহ সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আব্দুস সালাম আজাদ, বিএনপি’র সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক-বিশিষ্ট কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন, বিএনপি-জাতীয় নির্বাহী কমিটি’র সদস্য এ্যাড. আবেদ রেজা, এ্যাড. মারুফ হোসেন, বিএনপি’র সদস্য ও জাসাস-জাতীয় নির্বাহী কমিটি’র সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক হেলাল খান, জাসাস-এর সহ সভাপতি গীতিকার মনিরুজ্জামান মনির, ইথুন বাবু, জাহাঙ্গীর আলম রিপন, ওবায়দুর রহমান চন্দন, সহ সভাপতি ও জাসাস-ঢাকা মহানগর এর আহবায়ক মীর সানাউল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হান্নান মাসুম, সাংগঠনিক সম্পাদক অভিনেতা চৌধুরী মাজহার আলী শিবা শানু, জাসাস-গাজীপুর জেলা জাসাস এর সভাপতি সৈয়দ হাসান সোহেল, জাসাস ঢাকা মহানগর এর যুগ্ম আহবায়ক নাহিদ উল্লাহ চৌধুরী, আমীর হোসেন বাবু, আব্দুল আলীম খোকন শেখ আরিফুর রহমান, শফিকুল হাসান রতন, আহসান হাবীব, মিজানুর রহমান ভান্ডারীসহ জাসাস-ঢাকা মহানগর এর সকল থানা ও ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা সভা শেষে গীতিকিার, সুরকার ইথুন বাবু,ব্লাক ডায়মন্ড খ্যাত কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন, কণ্ঠশিল্পী রিজিয়া পারভীন, কণ্ঠশিল্পী নাসির, দিঠি আনোয়ার ও জাসাস এর শিল্পীদের সমন্বয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech