আ.লীগের নানক-সাদেক গ্রুপের সংঘর্ষে প্রাণ গেল দুইজনের

  

পিএনএস ডেস্ক: রাজধানীর মোহাম্মদপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানের সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে এ পর্যন্ত দুইজন নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন।

শনিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী সাদেক খানের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করাকে কেন্দ্র করে ওই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সংঘর্ষ চলাকালে নিজেদের পিকআপের নিচে চাপা পড়ে আরিফ এবং সুজন নামে দুইজন নিহত হন। অস্ত্রের আঘাতে রাসেল নামে আহত একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

সংঘর্ষ নিয়ে নানক কিংবা সাদেক খানের কোনো প্রতিক্রিয়া এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের মোহাম্মদপুর বিভাগের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, মোহাম্মদপুর এলাকার সুনিবিড় হাউজিংয়ের সামনের সড়কে শনিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ঘটনাটি ঘটে।

ওই এলাকা দিয়ে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী সাদেক খান ধানমন্ডি কার্যালয়ের দিকে গাড়িবহর নিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে যাচ্ছিলেন। এ সময় বর্তমান এমপি জাহাঙ্গীর কবির নানকের সমর্থকেরা ওই গাড়িবহরে বাধা দেন। তখন উভয় পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, এ ঘটনা ভুল বোঝাবুঝির কারণে হয়েছে। পরে মিটমাট হয়ে গেছে বলে তারা জানতে পেরেছেন। এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি।

আদাবর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাওসার আহমেদ বলেন, ‘মিছিল যাওয়া নিয়ে প্রথমে জুনিয়র গ্রুপের মধ্যে কথা-কথাকাটি থেকে একপর্যায়ে দৌড়াদৌড়ির ঘটনা ঘটে। বড় কিছু ঘটেনি। এ ব্যাপারে আমরা কয়েকজনকে জিজ্ঞাসা করেছি, কিন্তু কেউ গ্রুপিংয়ের কথা বলেনি। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক। কোনো মামলা বা আটকের ঘটনা ঘটেনি।’

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech