‘নির্বাচন নিয়ে দুই দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের’

  

পিএনএস ডেস্ক: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট অংশগ্রহণ করবে কি-না সে সিদ্ধান্ত আগামী দু'দিনের মধ্যে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন জোটের শরীক লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ।

শনিবার রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ২০ দলীয় জোটের বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

অলি আহমদ বলেন, ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে আসন্ন জাতীয় নির্বাচন ও দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ২০ দলীয় জোট নির্বাচনে যাবে কি-না সে বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আগামী দুই দিনের মধ্যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা না করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে এর আগে শনিবার বিকেল ৫টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যরা নিজেদের মধ্যে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকের পরই ২০ দলীয় জোটের বৈঠক শুরু হয়। রাতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গেও বিএনপির নেতাদের একটি বৈঠকের কথা রয়েছে।

নির্বাচনে অংশ নিতে হলে রোববারের মধ্যে 'চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত' নিতেই হবে বিএনপিকে। কারণ, রোববারের মধ্যে কোন দল কোন জোটের সঙ্গে 'নির্বাচনী মোর্চা' করবে- তা নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) লিখিতভাবে জানাতে হবে। এমনকি দলীয় 'প্রতীক' কার স্বাক্ষরে বরাদ্দ করা হবে, তার নাম ও নমুনা স্বাক্ষরসহ ইসিকে জানাতে হবে।

ইসির পক্ষ থেকে এ-সংক্রান্ত চিঠি সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের কাছে পাঠানো হয়েছে বলে শুক্রবার জানিয়েছেন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

বিএনপির একাধিক সূত্র জানায়, আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে যাচ্ছে তাদের দল। দলের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি দেশি-বিদেশিরাও বিএনপিকে এবার নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জোর পরামর্শ দিচ্ছেন। বিগত দশম সংসদ নির্বাচন বর্জনের মতো আর 'ভুল' না করার অনুরোধ করছেন তারা। একই সঙ্গে ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারাও নির্বাচনে যাওয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক মনোভাব পোষণ করছেন।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech