সংরক্ষিত নারী আসনে এগিয়ে তিন তারকা

  


পিএনএস ডেস্ক: সংসদ নির্বাচনের ফলাফলের গেজেট প্রকাশের ৯০ দিনের মধ্যে সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষে এখন সবার দৃষ্টি সংরক্ষিত ৫০টি নারী আসনের দিকে।

সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন সে নিয়ে আলোচনার শেষ নেই। কারা পাচ্ছেন মনোনয়ন সে নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা।বিশেষ করে একঝাঁক তারকা রয়েছেন আলোচনায়।

তালিকায় আছেন তারানা হালিম, রোকেয়া প্রাচী, শমী কায়সার, নুজহাত চৌধুরী, নিপুণ, অপু বিশ্বাস, জ্যোতিকা জ্যোতিসহ আরও অনেকে।

এদিকে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেল, সংরক্ষিত আসনে আওয়ামী লীগের হয়ে মনোনয়ন পাচ্ছেন তিন তারকা। তারা হলেন সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ও অভিনেত্রী তারানা হালিম, অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী ও অভিনেত্রী শমী কায়সার।

সূত্র জানিয়েছে, এই তিনজনকে দেখা যেতে পারে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের তালিকায়। দলের সভাপতি শেখ হাসিনার পছন্দের প্রার্থী হিসেবে আলোচিত হচ্ছে এই তারকাদের নাম।

তিন তারকার মধ্যে অ্যাডভোকেট তারানা হালিম আশির দশকের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী। বেশকিছু নাটকে তার অভিনয় প্রশংসিত হয়। চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি। আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত দীর্ঘদিন। গেল দুই মেয়াদে তিনি সরকারের দুটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি মনোনয়ন চেয়েছিলেন টাঙ্গাইলের একটি আসন থেকে।

অন্যদিকে অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী অভিনয়ের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। বাংলাদেশ টেলিভিশনে 'জয় পরাজয়' নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে টিভি নাটকে তার যাত্রা শুরু হয়। ১৯৯৭ সালে 'দুখাই ' চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে তার চলচ্চিত্রে অভিনয়ের যাত্রা শুরু হয়। উল্লেখ্য, তার পরপর তিনটি ছবি অস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিল। তিনি নাটক টেলিছবি নির্মাণেও দেখিয়েছেন মুন্সিয়ানা।

বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনী-৩ আসন থেকে চেয়েছিলেন মনোনয়ন। সেখানে দলের গ্রিন সিগন্যাল না পেলেও সংরক্ষিত নারী আসনে তার নাম দেখা যাবে বলে শোনা যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে রোকেয়া প্রাচী বলেন, 'যা কিছু হয় ভালোর জন্য হয়। আমি মনোনয়ন কিনেছি। আপা (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) আমাকে গ্রিন সিগন্যাল দিয়েছেন। তিনি আমার অভিভাবক। তিনি অনেক সুযোগ দিয়েছেন দলের হয়ে কাজ করার। তার প্রতি কৃতজ্ঞতার কোনো শেষ নেই। যদি সুযোগ পাই সংসদে যাওয়ার সংবিধান অনুযায়ী দলের হয়ে দেশ ও মানুষের জন্য কাজ করতে চাই।'

আরেক অভিনেত্রী শমী কায়সার আশির দশকের শেষের দিকে অভিনয়ে নাম লেখান। তার অসংখ্য নাটক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। চলচ্চিত্রেও হাজির হয়েছেন তিনি অভিনয়ের দ্যুতি ছড়িয়ে।

শহীদ বুদ্ধিজীবী শহীদুল্লাহ কায়সারের মেয়ে শমী শৈশব থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির ভক্ত। সরাসরি রাজনীতিতে জড়িত তিনি দীর্ঘদিন ধরেই। একাদশ সংসদ নির্বাচনে ফেনী-৩ আসন থেকে মনোনয়ন চেয়েছিলেন আওয়ামী লীগের হয়ে।

শোনা যাচ্ছে, আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পছন্দের তালিকায় রয়েছে এই অভিনেত্রীর নাম। সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে মহান জাতীয় সংসদে দেখা মিলবে তার। এর আগে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন শমী কায়সারের মা পান্না কায়সার।

প্রসঙ্গত, একাদশ সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে ৫০ জন জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি তফসিল ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন। সোমবার কমিশন সভা শেষে ইসির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এই সিদ্ধান্ত জানান।

তিনি বলেন, সংরক্ষিত ৫০ আসনের প্রার্থী মনোনয়নের বিষয়ে সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দল ও স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদেরে দল ও জোটগত অবস্থান জানাতে চিঠি দেয়া হবে। ৩০ জানুয়ারির মধ্যে এ বিষয়ে কমিশনকে অবহিত করতে হবে।

১২ ফেব্রুয়ারি এ নির্বাচনের ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে। আইন অনুযায়ী, সংসদের সাধারণ আসনে শপথগ্রহণকারী ব্যক্তিরাই সংরক্ষিত আসনের নির্বাচনে ভোটার হবেন। ভোটার তালিকা প্রকাশ হয়ে গেলে ১৭ ফেব্রুয়ারি নারী আসনের তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে জানান হেলালুদ্দীন।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech