‘উন্নয়ন যেন আমার প্রগতির পথকে বাধাগ্রস্থ না করে’

  

পিএনএস ডেস্ক : বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, আমরা অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জন করেছি। এতে কোনো সন্দেহ নাই। তবে সেই উন্নয়ন যেন প্রগতির পথকে বাধাগ্রস্থ না করে। সেই উন্নয়ন যেন আমার মূল্যবোধকে ধ্বংস না করে। উন্নয়ন যেন আমার নীতি-নৈতিকতা বোধকে চূর্ণ না করে দেয়, সেই চ্যালেঞ্জ গুলো আমাদের সামনে। আজকে যে পাহাড় সমান বৈষম্য, আমরা স্বীকার না করি। সারা বিশ্ব স্বীকার করছে, সেই বৈষম্য।

বুধবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম মিলনায়তনে ‘ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস’ উপলক্ষে বাংলাদেশ জাসদ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
এসময় তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে কোটিপতির সংখ্যা, ধনী হওয়ার সংখ্যা চীনকেও ছাড়িয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশে নিচের দিকের মানুষের সম্পদ ১২১ গুণ কমে গেছে।

রাশেদ খান মেনন আরো বলেন, আমাদের স্বাধীনতার ঘোষণা পত্রে সুস্পষ্টভাবে বলা হয়েছিল, অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হবে বাংলাদেশ, যেখানে সামাজিক ন্যায়বিচার, মানিবক মর্যাদা ও সাম্যের কথাও উল্লেখ ছিল। পরে যখন সংবিধান প্রণয়ন করা হয়, তার প্রতিটি শব্দ সংযুক্ত করা হয়েছে। কিন্তু ‘আজকে আমরা তা বিস্মৃত হয়েছি কীনা দেখা দরকার। যেখানে পাহাড় প্রমাণ বৈষম্য বিরাজ করছে, কোটিপতির সংখ্যা, ধনী হওয়ার সংখ্যা চীনকেও ছাড়িয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশে নিচের দিকের মানুষের সম্পদ ১২১ গুণ কমে গেছে। তখন আমাদের মূল্যবোধ নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেয়।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশে ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলার পরে যখন দেখি রাষ্ট্রীয় আনুকূল্য নিয়ে একটি নির্দিষ্ট মতবাদ ছাড়া আর সবাই কাফের হয়ে যায়-তখন নীতি-নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠে। কারণ এসবই হচ্ছে আমাদের প্রশাসনিক আনুকূল্যে।

জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, জাসদের নির্বাহী সভাপতি মইনউদ্দিন খান বাদল এমপি, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন, গণ-আজাদী লীগের সভাপতি এস কে সিকদার, ন্যাপ নেতা আব্দুর রশীদ, জাসদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, স্থায়ী কমিটির সদস্য ডা. মুশতাক হোসেন প্রমুখ।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech