এমনটা যেন আর কোনো পরিবারের সঙ্গে যেন এমনটা না হয়: সোহেল তাজ

  

পিএনএস ডেস্ক : এগারো দিন পরে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ তার নিখোঁজ ভাগ্নেকে ফিরে পাওয়ার পর বলছেন, এমনটা যেন আর কোনো পরিবারের সঙ্গে না হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ভোরে সৈয়দ ইফতেখার আলম সৌরভকে ময়মনসিংহ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর তাকে পুলিশি প্রহরায় ঢাকায় নিয়ে আসা হয় এবং পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

সোহেল তাজ বলেন, ‌আমাদের নিজেদের সাথে এমনটা হয়েছে। কেউ নিখোঁজ হলে তার পরিবারের ওপর দিয়ে কী অবস্থা যায় আমরা জানি। এই মানসিক যন্ত্রণা কোন মানুষের জন্য কাম্য হতে পারে না।

এতদিন ধরে একটা অনিশ্চয়তার ওপর ভর করে অপেক্ষা করতে হয়েছে সৌরভের পুরো পরিবারকে।

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার আগে এক ফেসবুক লাইভেও তিনি এ কথা জানান।

সেখানে তিনি বলেন, ‌এই কয়দিন তো আমাদের অনুভূতি বলতে কিছুই ছিল না। খাওয়া দাওয়া নেই। কোনো ঘুম নেই।

‌কখন কল আসবে, ওর গলা শোনা যাবে কি-না। এই ভেবে দিনরাত অপেক্ষা করে গেছি। এটা একটা বিষাক্ত অনুভূতি। বিষ খে‌‌‌‌‌লেও মনে হয় মানুষের এই কষ্ট হয় না।'

এসময় সৌরভের মা বলেন, অন্য কোনো বাবা-মাকে যেন এই 'বিভীষিকাময়' অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যেতে না হয়।

পুলিশের দাবি, অপহরণকারীরা সৌরভকে তারাকান্দার উপজেলার বটতলা বাজার এলাকার একটি রাইস মিলের কাছে গাড়ি থেকে ফেলে রেখে যায়।

এ সময় ফ্যাক্টরির কয়েকজন কর্মচারী সৌরভকে দেখতে পেয়ে তার পরিবারের কাছে ফোন করে বিষয়টি জানায়।

এরপর পরিবারের পক্ষ থেকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে বিষয়টি জানানো হলে তারা তাৎক্ষণিকভাবে সৌরভকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে।

উদ্ধারের সময় সৌরভ শারীরিকভাবে অক্ষত থাকলেও মানসিকভাবে বেশ বিপর্যস্ত ছিলেন বলে জানিয়েছেন জেলার পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন।

সেখান তিনি সৌরভকে তার নিজ বাড়িতে নিয়ে গিয়ে খাওয়া দাওয়া ও গোসলের ব্যবস্থা করেন। এরপর পুলিশি নিরাপত্তায় ঢাকার পথে রওনা দেন তিনি।

এ ব্যাপারে গণমাধ্যমের সামনে সোহেল তাজ বলেন, "সৌরভের অবস্থা ভালো ছিল না। আমি যতটুকু জেনেছি যে তাকে চোখ বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে।'

‌ওর গায়ে কোন জামা ছিল না, খালি পায়জামা পরা ছিল। সে খুব ক্ষুধার্ত ছিল। তবে আমরা ওকে অক্ষত অবস্থায় পাচ্ছি এটাই বেশি।'

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech