‘সড়ক আইনে অসংগতি থাকলে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান’

  

পিএনএস ডেস্ক : আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সড়ক আইনে কোনো অসংগতি থাকলে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা হবে।

বৃহস্পতিবার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে সংস্কৃতি বিষয়ক উপ-কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভা শেষে সড়ক আইনের অসন্তুষ্টি প্রকাশ করে পরিবহন খাতে ধর্মঘট সম্পর্কে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়কে আইন প্রয়োগে কোনো বাড়াবাড়ি হবে না। আইনে অসংগতি থাকলে পরীক্ষ-নিরীক্ষা করে দেখা হবে এবং আলাপ -আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করা হবে। সড়ক আইনের মূল কাজ হচ্ছ সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা।

এ সময় বিএনপির সমালোচনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপির নেত্রী কারাগারে রেখে তারা কোনো দৃশ্যমান আন্দোলন করতে পারেনি। তাই সবকিছুতেই ব্যর্থ হয়ে বিএনপি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজবের রাজনীতি করছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে বর্তমানে পেঁয়াজ, চাল ও লবণের উপর ভর করেছে। তারা গুজবের রাজনীতি করেছে। নেতিবাচক রাজনীতির কারণে জনগণ তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করেছে। তাদের নেত্রী খালেদা জিয়া কারাগারে আছে তার জন্য রাস্তায় নেমে কোনো একটি দৃশ্যমান আন্দোলন করতে পারেনি।

আওয়ামী লীগ ছাড়া কোনো দল গণতন্ত্রের চার্চা করে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কোনো দলে গণতন্ত্রের চর্চা নেই। অন্য দল কলমের খোঁচায় সবাই করে ফেলে।

সম্মেলন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, সম্মেলনের দিন মনোজ্ঞ ও আকর্ষণীয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় দিন কাউন্সিল অধিবেশনে গঠনতন্ত্র সংশোধন ও কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে নেতা নির্বাচন করা হবে।

সংস্কৃতি উপ-কমিটির চেয়ারম্যান আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন কমিটির সদস্য সচিব আসীম কুমার উকিল, আকবর হোসেন খাঁন পাঠান, সাইফুল আজম বাশার, লিয়াকত আলী লাকী, আহকামুল্লাহ, সাংবাদিক নেতা সোহেল হায়দার চৌধুরী প্রমুখ।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech