প্রভু সেজে অন্য দলও নিয়ন্ত্রণ করতে চায় সরকার : মির্জা ফখরুল

  

পিএনএস ডেস্ক : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের মানসিক সমস্যা রয়েছে। তারা এখন নিজেদের প্রভু ভাবতে শুরু করেছে।

তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রের প্রভু তারা, এটাই তাদের সমস্যা হয়ে গেছে। সবকিছু তারা তাদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে চায়। ভিন্ন একটা রাজনৈতিক দল কীভাবে চলবে সেটাও তারা নিয়ন্ত্রণ করতে চায়।’

অনুমতি না নিয়ে সভা-সমাবেশ করার সাহস, শক্তি বা সক্ষমতা নেই বিএনপির- আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি ফখরুল এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার ঠাকুরগাঁও শহরে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সভা-সমাবেশ করার অনুমতি চাই না, আমরা অবগত করি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এ সরকার যেটা করছে, সেটা গ্রাম্য মোড়লের কায়দায়। সরকার অনুমতি দিতে টালবাহানা করে থাকে। এতে সমাবেশ সফলভাবে করা খুব কঠিন।’

এ সময় তিনি বলেন, সরকার বাজার ব্যবস্থাপনায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ। কোনোমতেই পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। ধানের দাম কমছে, চালের দাম বাড়ছে। এ সরকার দেশ পরিচালনায় সম্পূর্ণ ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। তাদের পদত্যাগ করা উচিত।

ফখরুল বলেন, ‘বিভিন্ন মন্ত্রীরা যে সব উক্তি করছেন, তা ভেবেচিন্তে বলছেন না। এটাতেও একটা প্রভাব পড়ছে।’

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সব চেয়ে বেশি আন্দোলন করেছে এটা অস্বীকার করার কিছু নেই। কিন্তু অন্যরা আন্দোলন করতে পারবে না সেটা ঠিক নয়। আন্দোলনে নামলে বিএনপিকে পদে পদে বাধা দেওয়া হয়।

বিএনপি মহাসচিবের অভিযোগ, প্রশাসনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে যোগ্যদের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে না। বিসিএস পরীক্ষায় টেকার পরে অন্য দল করলে তাদের বাদ দিয়ে নিজেদের লোকদের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। ফলে প্রকৃত মেধাবীর অভাব দেখা দিচ্ছে।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, বিচার বিভাগ ও নির্বাচন কমিশনকে প্রভাবিত না করে স্বাধীনভাবে চলতে দেন। ব্যর্থতার দায় নিয়ে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ সরকারের মাধ্যমে নির্বাচন দিন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সহসভাপতি নূরে সাহাদাত স্বজন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নূর করিমসহ জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন