ইতিহাস বিকৃতিকারীদের স্থান হয় আস্তাকুড়ে : আইনমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এমপি বলেন, ইতিহাস কখনও বিকৃতি করা যায় না। ইতিহাস বিকৃতিকারীদের স্থান হয় আস্তাকুড়ে। স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস বিকৃতি করতে চেয়েছিলো বিএনপি। তাই জনগণ তাদের ইতিহাসের আস্তাকুড়ে ছুড়ে ফেলেছে।

শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা প্রেসক্লাব দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সরকার ইতিহাস বিকৃতি করছে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের এমন মন্তব্যের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, স্বাধীনতা একদিনে আসে নাই। স্বাধীনতা অনেক কষ্টের ফসল। বিএনপি দেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিলো। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন বিশ্ব দরবারে। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা, সেহেতু আপনাদের দায়িত্বও মহান। আমরা আশা করি আপনারা বস্তুনিষ্ট সাংবাদিকতা করবেন। সত্য পরিবেশনে কখনো পিছপা হবেন না। আপনারা আপনাদের পেশাকে সম্মান করুন। জনগণকে সত্য তথ্য পরিবেশন করুন। আপনারা আপোষহীন হিসেবে কাজ করুন।

এসময় বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন ও লেখনীর মাধ্যমে এসব কুচক্রি মহলকে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেয়ার আহ্বান জানান আইনমন্ত্রী।

কসবা প্রেসক্লাব সভাপতি মো. সোলেমান খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ উল আলম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হাছিবা খান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আরজু, পৌর মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মনির হোসেন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা সিদ্দিকী, পৌর প্যানেল মেয়র মো. আবু জাহের, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এমএ আজিজ, আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো.শফিকুল ইসলাম রঙ্গু, দৈনিক মাতৃছায়া সম্পাদক এম এ সোহেল আহমেদ মৃধা, উপজেলা ছাত্রলীগ আহ্বায়ক আফজাল হোসেন রিমন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/এসআইআর


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন