দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান হচ্ছে

  



পিএনএস: কয়েকদিন আগে সাকিব আল হাসানকে বলতে শোনা গেছে, শেষ কবে টেস্ট খেলেছি তা ভুলেই যেতে বসেছি! বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার হয়তো অনেকটা আক্ষেপের সঙ্গেই কথাটা বলেছেন। কিন্তু কথাটা একেবারেই অসত্য নয়। দীর্ঘ প্রায় ১৫ মাস পর আবার টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামছে বাংলাদেশ।

গত বছর জুলাই-আগস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিল বাংলাদেশ। এরপর থেকে টানা ১৪ মাস ১৮ দিন টেস্ট ক্রিকেটের বাইরে। এত দীর্ঘসময় লংগার ভার্সন ক্রিকেট থেকে দূরে থাকা আসলেও অস্বাভাবিক ব্যাপার।

অথচ গত বছর জুলাইয়ের পর থেকে এখন পর্যন্ত ২৭টি সীমিত ওভারের ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। আর গত বছর মাত্র পাঁচটি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে। তার সবকটিই খেলেছে গত বছর আগস্ট পর্যন্ত। তার মধ্যে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটি, ভারতের বিপক্ষে একটি এবং দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন মুশফিক-তামিমরা।

অথচ ইংল্যান্ডের কথাই ধরা যাক। গত বছর আগস্ট থেকে এই অক্টোবর পর্যন্ত তারা ১৬টি টেস্ট খেলে ফেলেছে। সেখানে বাংলাদেশ একটি ম্যাচও খেলেনি।

বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের কথায়ও তাই কিছুটা আক্ষেপ ঝরে পড়ছে, 'দীর্ঘ বিরতির পর আবার টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামছি। স্বাভাবিক কারণেই কিছুটা পিছিয়ে আছি আমরা। যেটি প্রতিপক্ষকে বাড়তি সুবিধা এনে দিতে পারে।'

এটি নিজেদের জন্য প্লাস পয়েন্ট মনে করছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুকও, 'বাংলাদেশ অনেকদিন টেস্ট খেলেনি, এতে আমাদের জন্য কিছুটা সুবিধা হতে পারে। তবে এই দলে কিছু মেধাবী ক্রিকেটার রয়েছে। তা ছাড়া দলটি গত তিন-চার বছরে বেশ উন্নতি করেছে। তাই সাফল্য পাওয়া আমাদের জন্য মোটেও সহজ হবে না।'


পিএনএস/বাকিবিল্লাহ্

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech