আরাফাত সানির বোলিং নিয়ে আবারো প্রশ্ন!

  


পিএনএস ডেস্ক: গত ২৮ নভেম্বর রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে আরাফাত সানির করা ১৯তম ওভারের প্রথম বলটির অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ২ আম্পায়ার গাজি সোহেল এবং রশিদ রিয়াজ।

ম্যাচ রেফারি নিয়ামুর রশিদ রাহুলের কাছে ওই ডেলিভারির সময়ে অ্যাকশনটির বৈধতা নিয়ে রিপোর্টও করেছেন।

এর দু’দিন আগে, গত ২৬ নভেম্বর রাজশাহি কিংসের বিপক্ষে খুলনা টাইটান্সের ক্যারিবিয়ান পেস বোলার কেভন কুপারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে দুই আম্পায়ার মাহাফুজুর রহমান এবং রশিদ রিয়াজের প্রশ্ন উঠে।

আরাফত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে দুই আম্পায়ারের রিপোর্টের সত্যতা স্বীকার করেছেন বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান এবং বিসিবির বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটির আহ্বায়ক জালাল ইউনুস।

তবে আম্পায়ারের রিপোর্টে বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও রাজশাহির কেভন কুপার কিংবা রংপুর রাইডার্সের আরাফত সানি আসরটিতে নিষিদ্ধ হচ্ছেন না।

এমনটাই জানিয়েছেন জালাল ইউনুস, ‘এ বার যেহেতু নির্দিষ্ট কোনও আইন ও পূর্ব সতর্কতামূলক ব্যবস্থা রাখা হয়নি তাই কেভন কুপার ও আরাফত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে আম্পায়াররা প্রশ্ন তুললে আমরা তাদেরকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে পারছি না। কারণ আমাদের কাছে পর্যাপ্ত ভিডিও ফুটেজ ও বিভিন্ন অ্যাঙ্গেলে বোলিং অ্যাকশন পরখ করার প্রয়োজনীয় উপকরণ নেই’।

ইতিমধ্যে কেভন কুপারের ভিডিও ফুটেজ পাঠিয়ে দিয়েছে বিসিবি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডকে। যদিও বাকি ম্যাচগুলোতে খেলতে পারবে সে’।

তবে বিপিএলের পরবর্তী আসরে কারো বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন উঠলে তার বোলিং ফুটেজ বিশ্লেষণ করে তাকে পরবর্তীতে বোলিংয়ের অনুমতি দেওয়া হবে।

এমন পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন জালাল ইউনুস, ‘এর পর থেকে আমরা বোলিং অ্যাকশনের ব্যাপারে আরো কঠোর হব। কারো বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন উঠলে ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে তা খতিয়ে দেখা হবে। আর সেই সব বোলারদের নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে’।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech