বাংলাদেশকে আরও বেশি দেশের বাইরে খেলতে হবে: টেইলর

  


পিএনএস ডেস্ক: হ্যাঁ, এই কথাটাই অসংখ্যবার উচ্চারিত হয়ে আসছে বাংলাদেশের ক্রিকেটে। গত ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের পর টানা প্রায় দুই বছর কোনো বিদেশ সফর করেনি বাংলাদেশ।

তবে ঘরের মাঠে একের পর এক সিরিজ জিতে নিজেদের অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে। তারপর সেই আকাঙ্খিত বিদেশ ট্যুর এল। নিউজিল্যান্ডে গিয়ে টানা দুই সিরিজ হারল ঘরের মাঠে টানা ৬ সিরিজ জেতা বাংলাদেশ! এটা কি শুধুই পারফরমেন্সের জন্য?

ভিন্ন দেশ মানেই ভিন্ন কন্ডিশন, ভিন্ন আবহাওয়া, ভিন্ন উইকেট। উপমহাদেশের স্পিন সহায়ক উইকেটে যেমন অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড কিংবা নিউজিল্যান্ডের মত দল খাবি খায়, ঠিক তেমনি সে সব দেশে গিয়ে বাউন্সি আর গতিময় পেস সহায়ক উইকেটে দিশেহারা হয়ে যায় উপমহাদেশের ক্রিকেটাররা। এজন্য দরকার সেসব উইকেটে খেলার অভিজ্ঞতা। কিন্তু শুধু বাংলাদেশের ক্ষেত্রে এটা হয়ে উঠে না ক্রিকেট মোড়লদের দৌরাত্মে। ওয়েলিংটন টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে অভিজ্ঞ কিউই ব্যটসম্যান রস টেইলরের গলায়ও একই সুর। বাংলাদেশকে আরও বেশি বিদেশ সফর করতে হবে।

টেইলর বললেন, "এখানে এসে ভিন্ন কন্ডিশনে অসাধারণ খেলছে বাংলাদেশ। তারা দিন দিন নিজেদের অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তাদের বিদেশের মাটিতে বেশি খেলা হয়না। অভিজ্ঞতা অর্জন করার জন্য আরও বেশি বিদেশের মাটিতে খেলতে হবে বাংলাদেশকে। "

বিদেশী এবং বর্তমান প্রতিপক্ষ একজন ক্রিকেটারের এমন মন্তব্য বাংলাদেশের ক্রিকেটার, বোর্ডের কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সাধারণ ক্রিকেটপ্রেমীদের মনের কথা। সেই সঙ্গে বস্তুনিষ্ঠ একটি মন্তব্য। আগামী মাসে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার ১৬ বছর পর ভারতে টেস্ট সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ। তাও একটিমাত্র টেস্ট! ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে হায়দরাবাদে। সেখানকার কন্ডিশনও সম্পূর্ণ ভিন্ন। বিসিবি বহু চেষ্টা করেও একটির বেশি টেস্ট ম্যাচ আয়োজন করতে ভারতকে রাজী করাতে পারেনি। রস টেইলরের বক্তব্যে ক্রিকেট বিশ্বের ঘুম ভাঙাবে কি?

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech