মেসির সাপ্তাহিক আয় সাড়ে ৫ কোটি টাকা, কীভাবে খরচ করেন?

  


পিএনএস ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে ধনী খেলোয়াড়দের একজন আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর লিওনেল মেসি। ফোর্বস ম্যাগাজিন অনুযায়ী, গত এক বছরে ৯৩ মিলিয়ন ডলার আয় করেছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আর তিনে থাকা মেসির আয় ৮০ মিলিয়ন। জানা গেছে, নতুন চুক্তিতে লিওনেল মেসির সাপ্তাহিক বেতন হবে ৫ লাখ পাউন্ড! বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৫ কোটি ২৩ লাখের বেশি! এত টাকা কীভাবে খরচ করেন মেসি?

মেসির আয়ের এক-তৃতীয়াংশ ২৭ মিলিয়ন ডলার আসে তার স্পনসরদের থেকে। মেসির সবচেয়ে বড় স্পনসর অ্যাডিডাস। বার্ষিক ১০ মিলিয়ন ডলার চুক্তিতে মেসির সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এই ক্রীড়াসামগ্রী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। এছাড়া মেসেজিং অ্যাপ উইচ্যাট, জিলেট, পেপসিকো এবং টাটা মোটরের সঙ্গেও চুক্তি আছে মেসির।

নিভৃতচারী মেসি নিজের মানবসেবা নিয়ে কখনোই প্রচারের চেষ্টা চালান না। তবে জানেন কি, মেসি নিজের আয়ের একটা বড় অংশ জনস্বার্থে ব্যয় করেন। তার গড়া 'মেসি ফাউন্ডেশন' এর মাধ্যমে বুয়েনস আয়ারসে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সুস্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করা হয়। দরিদ্র দেশ মোজাম্বিকের প্রায় ১৫ হাজার শিশু পুষ্টিহীনতায় ভুগছে। তাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে মেসি ফাউন্ডেশন। তার বিয়েতে আমন্ত্রিত অতিথিদের উপহার না আনার অনুরোধ করে উপহারের অর্থ ফাউন্ডেশনে দান করার আহবান জানিয়েছিলেন ফুটবল জাদুকর।

এবার ফেরা যাক মেসির ব্যক্তিগত জীবনে। বেড়াতে খুব ভালোবাসেন মেসি। ছুটি পেলেই বউ-বাচ্চা নিয়ে চলে যান নিরিবিলি সুন্দর কোনো স্থানে। এজন্য ভূমধ্যসাগরের ইবিজা দ্বীপকেই বারবার বেছে নেন মেসি। এখানে সময় কাটানোর সময় ৮৫ ফুট লম্বা একটি ইয়ট ভাড়া করেছিলেন গতবার। এর জন্য প্রতিদিন মাত্র ৭ হাজার ৮০০ ইউরো খরচ হয়েছিল তার। অর্থাৎ দিনে ৭ লাখ ১৮ হাজার টাকা।

নিজের দেশ আর্জেন্টিনা এবং তার 'দ্বিতীয় দেশ' বলে খ্যাত স্পেনে বাড়ি কিনেছেন মেসি। স্পেন ও আর্জেন্টিনা—দুই দেশেই বাড়ি কিনেছেন মেসি। ২০০৯ সালে বুয়েনস আয়ারসে বাড়িটি কিনেছেন ২০ লাখ ডলারে। আর বার্সেলোনায় ৭০ লাখ ডলার খরচ করে নির্মাণ করেছেন নয়নাভিরাম বাংলোবাড়ি। এছাড়া গাড়ির শখ আছে বার্সা সুপারস্টারের। মোট ৮০ লাখ ডলার মূল্যের ১৪টি গাড়ি আছে তার সংগ্রহে। ২ লাখ ৪০ হাজার ডলারের 'মাজেরাতি এমসি স্ট্রাডল', 'ফেরারি এফ-৪৩০ স্পাইডার' কিংবা 'অডি আর-৮ স্পাইডার' এর মত বিলাসবহুল গাড়ি আছে তার সংগ্রহে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech