নির্বাচকদের আবারও নাঈমের সেঞ্চুরি-বার্তা

  

পিএনএস ডেস্ক : খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামটা খুব ‘পয়া’ দেখা যাচ্ছে নাঈম ইসলামের। জাতীয় লিগের প্রথম পর্বে এ মাঠেই খুলনার বিপক্ষে পেয়েছিলেন সেঞ্চুরি। মাঝে তিন ম্যাচে রানের দেখা নেই। যদিও একটা ম্যাচ ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। আজ খুলনায় জাতীয় লিগের পঞ্চম পর্বে আবারও কথা বলেছে নাঈমের ব্যাট। রংপুরের এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের সঙ্গে দুর্দান্ত খেলেছেন সোহরাওয়ার্দী শুভও। দুজনের সেঞ্চুরিতে ঢাকা বিভাগের বিপক্ষে প্রথম দিনে রংপুর করেছে ৪ উইকেটে ৩২১।

৫৫ রানে রংপুরের ৩ উইকেট তুলে নিয়ে ভালোই একটা ধাক্কা দিয়েছিল ঢাকা। ঢাকা বিভাগের বোলারদের দুর্ভোগের শুরু এরপরই। চতুর্থ উইকেট জুটি ২৬৬ রান যোগ করে দিনটা নিজেদের করে নিয়েছেন সোহরাওয়ার্দী-নাঈম। শুভাগতর বলে বোল্ড হওয়ার আগে সোহরাওয়ার্দী করেছেন ১৪৫ রান। ইনিংসটা সাজিয়েছেন ১৮ চার ও ২ ছক্কায়। দ্বিতীয় দিনেও ঢাকার বোলারদের ভোগাতে নাঈম অপরাজিত ১২০ রানে।

জানুয়ারিতে বিসিএলে দুর্দান্ত খেলেছেন নাঈম। ৬ ম্যাচে ৮২.১৪ গড়ে ৪ সেঞ্চুরিতে করেন ৫৭৫ রান। ছন্দটা ধরে রেখেছেন সীমিত ওভারের ক্রিকেটেও। গত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে ১০ ম্যাচে ৬৫.৮৭ গড়ে করেন ৫২৭ রান। জাতীয় লিগে পাঁচ ম্যাচে দুই সেঞ্চুরি করে নাঈম যেন নির্বাচকদের আবারও বার্তা দিয়ে রাখলেন।
চট্টগ্রামে ইমতিয়াজ হোসেনের ১৩২ রানের সৌজন্যে ঢাকা মহানগরের বিপক্ষে সিলেট প্রথম দিন শেষ করেছে ৬ উইকেটে ২৪১ রান করে।

বগুড়ায় ফরহাদ রেজা-দেলোয়ার হোসেনদের দারুণ বোলিংয়ে রাজশাহীর বিপক্ষে চট্টগ্রাম অলআউট ২৬০ রানে। পাঁচ রানের জন্য সেঞ্চুরি হাতছাড়া করেছেন সাজ্জাদুল হক। ৪ উইকেট নিয়ে রাজশাহীর সফলতম বোলার ফরহাদ। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমে ২ উইকেটে ৩৪ রান তুলে দিন শেষ করেছে রাজশাহী।

রাজশাহীতে বরিশালের বিপক্ষে প্রথম দিনটা নিজেদের করে নিয়েছ খুলনা। ওপেনার রবিউল ইসলাম রবির সেঞ্চুরি ও তুষার ইমরান-জিয়াউর রহমানের ফিফটিতে প্রথম দিনে খুলনার রান ৪ উইকেটে ৩০৭।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech