যৌন কেলেঙ্কারির গোপনীয়তা বলবেন গেইল, তবে চাইলেন ২ কোটি!

  

পিএনএস ডেস্ক : অস্ট্রেলীয় মিডিয়া ফায়ারফ্যাক্সের করা মানহানি মামলায় নিজেকে নির্দোষ প্রমাণিত করে বৃহস্পতিবার মুক্ত হন তিনি। জয়ের পরই বিস্ফোরক টুইট গেইলের। তিনি টুইটে জানান, যৌন কেলেঙ্কারির এক্সক্লুসিভ তথ্য নিলাম করতে চান। নিলামের ডাক শুরু হবে ন্যূনতম ৩০০ হাজার ডলার

বাইশ গজে হামেশাই জয় ছিনিয়ে এনেছেন। কিন্তু কোর্টরুম থেকেও 'জয়' ছিনিয়ে আনলেন ক্যারিবিয়ান তারকা ক্রিস্টোফার হেনরি গেইল। অস্ট্রেলীয় মিডিয়া ফায়ারফ্যাক্সের করা মানহানি মামলায় নিজেকে নির্দোষ প্রমাণিত করে বৃহস্পতিবার মুক্ত হন তিনি। জয়ের পরই বিস্ফোরক টুইট গেইলের।

তিনি টুইটে জানান, যৌন কেলেঙ্কারির এক্সক্লুসিভ তথ্য নিলাম করতে চান। নিলামের ডাক শুরু হবে ন্যূনতম ৩০০ হাজার ডলার।

গেইলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, এক ম্যাসেজ থারাপিস্টের সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছেন তিনি। অস্ট্রেলীয় সংবাদমাধ্যামের নির্দিষ্ট অভিযোগ, ২০১৫ ক্রিকেট বিশ্বকাপ চলাকালীন থেরাপিস্ট লিয়েনে রাসেলকে নিজের যৌনাঙ্গ দেখান গেইল এবং কটূক্তি করে বলেন, "তুমি কী এটাই (যৌনাঙ্গ) খুঁজছিলে?" সিডনির ওভালের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই শুরু হয় বিতর্ক।

অবশেষে দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর ফায়ারফ্যাক্সের বিরুদ্ধে জয় পান গেইল। মানহানি মামলায় অস্ট্রেলিয়ার সুপ্রিম কোর্ট গেইলের পক্ষেই রায় ঘোষণা করে। আর জয় পেয়েই অস্ট্রেলীয় মিডিয়ার বিরুদ্ধে নিজস্ব ভঙ্গিতে তোপ দাগেন এই ৩৮ বছর বয়সী ক্রিকেট তারকা।

কোর্টরুম থেকে বেরিয়েই সাংবাদিকদের গেইল বলেন,"আমি একজন ভাল মানুষ। আমি নির্দোষ।" গেইলের দাবি, কোর্টরুমে চলা মামলার সওয়াল-জবাব ছিল, "সিনেমার মত"। এরপরই টুইটে তাঁর ঘোষণা, "আমার আরও অনেক কিছু বলার আছে।

এটা এক ঘণ্টার একটা এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকার হতে পারে। অথবা এই নেপথ্য কাহিনি জানতে আমার বই প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।" গেইল তাঁর ৪০ লক্ষ টুইট-অনুরাগীর কাছে বলেন,"কোর্টরুমে প্রতিদিন কী ঘটেছে, আমি সবটা বলব।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech