চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ!

  



পিএনএস ডেস্ক: ব্যাট হাতে লড়াই করার মতো সংগ্রহ এনে দিলেন আয়েশা, ছুঁলেন ব্যক্তিগত এক মাইলফলক। বল হাতে বাকি কাজ সারলেন পান্না, গড়লেন বাংলাদেশের পক্ষে এক রেকর্ড। এই দুয়ে ভর করে বিশ্ব টি-টোয়েন্টির ফাইনাল ম্যাচে সহজেই জিতেছে বাংলাদেশ।

উটরেচের স্পোর্টস পার্কে আয়ারল্যান্ড নারী দলকে ফাইনাল ম্যাচে ২৫ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এ জয়ে নিজেদের প্রত্যাশামাফিক বাছাইপর্বের চ্যাম্পিয়ন হলো বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

ব্যাট হাতে আয়েশা রহমান খেলেন ৪৬ রানের ইনিংস, বাংলাদেশ পায় ১২২ রানের লড়াকু সংগ্রহ। পরে বল হাতে বাংলাদেশের পক্ষে সেরা বোলিং ফিগারের রেকর্ড গড়ে ৫ উইকেট নেন পান্না ঘোষ। তার এই বোলিংয়ে মাত্র ৯৭ রানেই গুটিয়ে যায় আইরিশদের ইনিংস। বাংলাদেশ পায় ২৫ রানের সহজ জয়। টুর্নামেন্টের সবক’টি ম্যাচ জিতে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হলো বাংলাদেশ।

১২৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে আইরিশরা। আইমার রিচার্ডসন ও গ্যাবি লুইস খানিক প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। তবে পান্না ঘোষের পেস ও রুমানা আহমেদের স্পিনে বেশিক্ষণ টিকতে পারেনি তারা।

আইমার ২৩ ও গ্যাবি করেন ২৬ রান। বাংলাদেশের পক্ষে পান্না ঘোষ ৪ ওভার বোলিং করে ১ মেইডেনের সাহায্যে মাত্র ১৬ রান খরচায় নেন ৫ উইকেট। বাংলাদেশের পক্ষে যেকোনো ফরম্যাটে এটিই সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড। এছাড়া রুমানা আহমেদ ও নাহিদা আকতার নেন ২টি করে উইকেট।


এর আগে ফাইনাল ম্যাচে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২২ রান করে বাংলাদেশ দল। আইরিশ অধিনায়কের আমন্ত্রণে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করেন দুই ওপেনার শামীমা সুলতানা ও আয়েশা রহমান। মাত্র ৪ ওভারে স্কোরবোর্ডে ২৮ রান যোগ করেন এ দুজন। ৩ চারের মারে ১৬ বলে ১৬ রান করে সাজঘরে ফেরেন শামীমা।

দ্বিতীয় উইকেটে ইনিংস সর্বোচ্চ ৫২ রান যোগ করেন আয়েশা ও ফারজানা হক। মূলত আয়েশার ব্যাট থেকেই আসে সব রান। দলীয় ৮০ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১৭ রানে ফেরেন ফারজানা। তার বিদায়ে ছোটখাটো বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। যার ফলে শেষের ৮ ওভারে মাত্র ৪২ রান করতে পারে বাংলাদেশ।

ফারজানা ফিরে যাওয়ার পরের ওভারেই সাজঘরে ফেরেন আয়েশা। তবে আউট হওয়ার আগে ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৪৬ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। ৫ চার ও ২ ছক্কার ৪২ বলে এ রান করেন তিনি। একই সাথে তৃতীয় বাংলাদেশি নারী ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ৫০০ রান পূরণ হয় তার। এর আগে ফারজানা হক ও রুমানা আহমেদ এ কীর্তি দেখিয়েছেন।

আয়েশা ফিরে গেলে বাংলাদেশের বড় সংগ্রহ গড়ার স্বপ্নও শেষ হয়ে যায়। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন নিগার সুলতানা, রুমানা আহমেদ, ফাহিখা খাতুনরা। শেষদিকে জাহারানা আলমের ১২ রানের অপরাজিত ইনিংসে ১২২ রান পর্যন্ত যায় বাংলাদেশ।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech