গ্রিজম্যানকে আমন্ত্রণ করলেন উরুগুয়ে প্রেসিডেন্ট

  

পিএনএস ডেস্ক: বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উরুগুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে ফ্রান্স তারকা আন্তোনিও গ্রিজম্যানকে নিজেদের দেশের বলে দাবি করেছিলেন লুইস সুয়ারেজ। বলেছিলেন গ্রিজম্যান অর্ধেক উরুগুইয়ান। যদিও, ফ্রান্সের কাছে হেরে যাওয়ার পর সুয়ারেজ বলতে বাধ্য হয়েছেন, গ্রিজম্যান উরুগুয়ের নয় তিনি পুরোপুরি ফ্রান্সের।

কিন্তু বিশ্বকাপ জয়ের পর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে উৎসবে মাততে গিয়ে যে কাণ্ড করে বসলেন গ্রিজম্যান, তা সবাইকে অবাক করে দিয়েছে। লুঝনিকির মিক্সড জোনে উরুগুয়ের পতাকা কাঁধে বিশ্বকাপ সেলিব্রেশেনে মেতে ওঠেন ফ্রান্সের তারকা ফুটবলার। লাতিন আমেরিকান দেশ উরুগুয়ে নিয়ে গ্রিজম্যানের ভালবাসা অজানা নয়। তবে বিশ্বকাপ জেতার পর বিশেষ মুহূর্ত সেলিব্রেশনের সময় হঠাৎ কেন অন্য দেশের পতাকা বেছে নিলেন, তা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

গ্রিজম্যান অবশ্য বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে নারাজ। বিশ্বকাপ জিতে ফরাসি তারকা জানিয়েছেন, ক্লাব ফুটবলে উরুগুইয়ান ফুটবলাররা তার সঙ্গী। তাই উরুগুয়ে দেশটি নিয়ে বিশেষ ভালবাসা রয়েছে। মিক্সজোনে উরুগুয়ের এক সাংবাদিক তার হাতে সেদেশের পতাকা তুলে দিলে তাই সেই পতাকা কাঁধে তুলে নিতে দ্বিধাবোধ করেননি তিনি।

সে সঙ্গে গ্রিজু আরও জানিয়েছেন, ‘উরুগুয়ে দেশটাকে আমি সম্মান করি। ফুটবল ক্যারিয়ারে উরুগুইয়ান মানুষের সঙ্গে অনেকবার সাক্ষাৎ হয়েছে। ওই দেশের সংস্কৃতি-মানুষ সবই আমার পছন্দের৷’

বিশ্বকাপের ফাইনালে উরুগুয়ের প্রতি সম্মান জানিয়েছেন গ্রিজম্যান, তাই তাকে বিশেষ সম্মান জানানোর উদ্যোগ নিয়েছেন উরুগুয়ের প্রেসিডেন্ট ডক্টর তাবারে ভাজকুয়েজ। তিনি হয়তো বিশ্বকাপ জয়ে গ্রিজম্যানকে কোনো সহযোগিতা করতে পারেননি, তবে অভিনন্দন তো জানাতে পারেন। একই সঙ্গে নিজ দেশে তিনি গ্রিজম্যানকে আমন্ত্রণও জানিয়েছেন। বছরের শেষ দিকে যে কোনো সময় উরুগুয়ে সফর করার জন্য গ্রিজুকে আমন্ত্রণ জানান তিনি।

উরুগুয়ে প্রেসিডেন্ট এক চিঠিতে গ্রিজম্যানকে উদ্দেশ্য করে লেখেন, ‘আমি তাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। মস্কোয় বিশ্বকাপ উদযাপনের সময়, এমনকি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সামনে তিনি উরুগুয়ের পতাকা কাঁধে নিয়েছিলেন। এটা নিশ্চিত আমাদের দেশকে সম্মানিত করেছে। আমরা সম্মানিত হয়েছি। এ কারণে তাকে আমরা আমন্ত্রণ জানাতে চাই। ফুটবল এমন একটি শক্তি, যা বিভিন্ন দেশের, বিভিন্ন সংস্কৃতির মানুষকে এক করে ফেলে। নানা উদযাপনকেও এক করে দেয়। বিশ্বকাপেই দেখা গেলো সেটা।’

উল্লেখ্য, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ক্লাবে উরুগুইয়ান ফুটবলার দিয়েগো গোডিন, হোসে গিমেনেজরার সঙ্গে খেলেন গ্রিজম্যান। ক্লাবের ফুটবলের এই সঙ্গীদের বিরুদ্ধে রাশিয়ার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল ছিল ফ্রান্সের। নকআউট পর্বের কোয়ার্টার ফাইনালের সেই লড়াইয়ে উরুগুয়েকে ২-০ হারিয়েছিল ফরাসিরা। ৬১ মিনিটে গোল করেছিলেন গ্রিজম্যান নিজে। ফাইনালে জয়ের পর সেই উরুগুয়েকে ভুললেন না গ্রিজম্যান।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech