দলে জায়গা না মিলার ভয়ংকর কারণ, জানলে অবাক হবেন!

  

পিএনএস ডেস্ক : এক সপ্তাহ আগেও স্বপ্নপূরণের আনন্দে হেসেছিলেন আরভিং বোতাকা-ইয়োবামা। মাত্র তিন দিন স্থায়ী হলো এ ফুটবলারের সুখ। পেশাদার ক্যারিয়ারের তাঁর প্রথম দলবদলের আনন্দ যে চতুর্থ দিনেই মাটি! কারণটা ভয়ংকর, আতঙ্ক জাগানো। কৃষ্ণাঙ্গ বলেই নাকি চুক্তি বাতিল করা হয়েছে ইয়োবামার!

রাশিয়ার তৃতীয় স্তরের ক্লাব টর্পেডো মস্কোর একাডেমিতেই প্রথমে খেলতেন ইয়োবামা। মাঝে লোকোমোটিভ-কাজানকা মস্কোতে ক্যারিয়ার গড়ে আবার আগের ক্লাবে ফিরছিলেন ১৯ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়। কঙ্গোলিজ বংশোদ্ভূত এই ডিফেন্ডার জাতীয়তায় রাশিয়ান। এই ডিফেন্ডারকে দলে ফেরানোর খবর গত ১৪ তারিখ ঘটা করে জানিয়েছিল টর্পেডো। এ ঘোষণায় অবশ্য আশানুরূপ প্রতিক্রিয়া পায়নি ক্লাব। নতুন এই খেলোয়াড়কে দলে নেওয়ায় প্রতিবাদ মিছিলে নেমেছিল ক্লাবের সমর্থকেরা! ১৭ তারিখ নতুন করে খবর আসে ইয়োবামাকে দলে টানার চিন্তা বাদ দিয়েছে টর্পেডো।

ক্লাব কর্তৃপক্ষ অবশ্য এর পেছনে আর্থিক কারণ দেখিয়েছে। তাদের দাবি কাজানকা মস্কো দলবদলের জন্য ট্রান্সফার ফি দাবি করেছিল। এ কারণেই তারা ইয়োবামাকে দলে টানছে না। ক্লাব কর্তৃপক্ষ বলেছে, ‘খেলোয়াড় নির্বাচনে গায়ের রং কখনোই বিবেচ্য নয়। বর্ণ বৈষম্যের টিকিয়ে রাখার কোনো সুযোগ নেই। আমরা এ ব্যাপারে দৃঢ় সংকল্প। আরভিং বোতাকার এই ব্যর্থ দলবদল প্রসঙ্গে দলবদলের অঙ্কটা মূল ভূমিকা রেখেছে।’

তবে গত সপ্তাহে ইয়োবামার ওই ঘোষণার পরই জ্যাপাড-ফাইভ নামে পরিচিত সমর্থকদের একটি দল রাশিয়ার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ভিকেতে হুমকি দিয়েছিল, ‘কালো আমাদের ক্লাবের একটা রং হতে পারে কিন্তু আমাদের দলে শুধু শ্বেতাঙ্গই চাই।’ রাশিয়ান ফুটবলারদের সংগঠনের প্রধান আলেক্সান্ডার যতোভ এর সমালোচনা করে বলেছিলেন, ‘বিশ্বকাপের পর অনেক মানুষের মনোভাবই পরিবর্তিত হয়েছে কিন্তু এখনো কিছু গর্দভ রয়ে গেছে।’

বিশ্বকাপের আগেই ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে দর্শকের বর্ণবিদ্বেষী আচরণে ২২ হাজার পাউন্ড জরিমানা দিয়েছে রাশিয়ান ফুটবল ইউনিয়ন। গত জানুয়ারিতে নিজেদের খেলোয়াড় নিয়ে বর্ণ বিদ্বেষী টুইট করে সমালোচনায় পড়েছিল স্পার্তাক মস্কো। এর পর এমন ঘটনা ফিফা পর্যন্ত গড়াতে পারে বলে ভাবছে সবাই।

টর্পেডো ক্লাব তাই ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করার চেষ্টা করেছে, ‘টর্পেডো ক্লাবেরই সাবেক খেলোয়াড় আরভিং মৌসুম শুরু হওয়ার আগে ঘুরতে এসেছিল। ওর খেলার ধরন ক্লাবের দরকার মনে হয়েছিল। বোতাকা নিজেই চুক্তি করার প্রস্তাব দেয়, দলবদল বিনা মূল্যে হবে বলেই তখন সিদ্ধান্ত হয়েছিল।


কিন্তু ১৭ জুলাই ওর ক্লাব থেকে আমাদের চিঠি পাঠানো হয়েছে। তারা আমাদের সতর্ক করেছে, বলেছে তাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। যেহেতু ক্লাবের নীতিতে দলবদলে কোনো অর্থ খরচের নিয়ম নেই, তাই এ দলবদল আর হয়নি। এ ছাড়া বোতাকাকে ক্লাবে না নেওয়ার আর কোনো কারণ নেই।’ বিবিসি অবলম্বনে

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech