না খেলেই খামখেয়ালিতে সেমিফাইনাল থেকে বাদ বাংলাদেশ!

  

পিএনএস ডেস্ক : খামখেয়ালিপনা কাকে বলে, সেটা দেখিয়ে সেটার চড়া মাশুল দিতে হলো বাংলাদেশ ইউনিফাইড ফুটবল দলকে। যুক্তরাষ্ট্রে স্পেশাল অলিম্পিক ইউনিফাইড ফুটবল টুর্নামেন্টে সেমিফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু রাশিয়ার বিপক্ষে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মাঠে নামতে পারেনি দল। কারণ গ্রুপ পর্বের ম্যাচে জার্সি নম্বর নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করায় অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে বাংলাদেশ দলকে।

মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে শুরু হয়েছে স্পেশাল অলিম্পিক ইউনিফাইড ফুটবল। টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে উরুগুয়ের বিপক্ষে হারলেও পরের দুই ম্যাচে ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছায় বাংলাদেশ। এর মধ্যে ফ্রান্সের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয়ের ম্যাচেই ঘটেছে বিপত্তি।

ফ্রান্সের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশের গোলরক্ষকের জার্সি নম্বর ১২ লাগানো হয়েছিল হাতে খোদাই করে; যা খেয়াল করেছিল ফ্রান্স। গ্রুপপর্বের খেলা শেষে আয়োজকদের কাছে এ ব্যাপারে লিখিত আপত্তি জানায় ফ্রান্স। পরে যাচাই–বাছাই করে টুর্নামেন্ট থেকে বাংলাদেশকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়। তাই সেমিফাইনাল খেলার প্রস্তুতি নিয়েও শেষ মুহূর্তে মাঠে নামা হয়নি বাংলাদেশের। বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্র থেকেই দলের খেলোয়াড়েরা স্বীকার করে নিয়েছেন।

স্পেশাল অলিম্পিকের পরিচালক ফারুকুল ইসলামও টুর্নামেন্ট থেকে বাংলাদেশের এমন অপ্রত্যাশিত বিদায় স্বীকার করে নিয়ে বলেন,‌ ‘জার্সি নম্বর বিভ্রাটে সেমিফাইনালে খেলতে পারেনি বাংলাদেশ। বিষয়টি আমি শুনেছি।’

ইউনিফাইড ফুটবল দলটি প্রতিবন্ধী ও শারীরিকভাবে সুস্থ ফুটবলারদের সমন্বিত দল। মোট ১৬ জনের দলে আটজন শারীরিক প্রতিবন্ধীর সঙ্গে সাতজন সম্পূর্ণ সক্ষম ফুটবলার খেলতে পারছেন। একাদশে খেলতে পারেন ছয়জন প্রতিবন্ধীর সঙ্গে পাঁচজন সক্ষম খেলোয়াড়।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech