রাব্বিকে দলে নেওয়ার কারণ বললেন হাবিবুল বাশার

  

পিএনএস ডেস্ক : জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে দলে সবচেয়ে বড় চমকটি ছিল ফজলে মাহমুদ রাব্বি। ৩০ পেরনো এই যুবককে প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাকা হলো। একসময় রাব্বির পরিচয় ছিল 'বাংলার গেইল' নামে। এখন ব্যাটিংটা বদলে গেছে অনেক। ব্যাটে থাকে পরিস্থিতির দাবি মেটানোর চেষ্টা। বয়স ৩০ হলেও ফিটনেস দারুণ। বোলিং কার্যকর। ফিল্ডিং ভালো। অনেকেই বলছেন ইনজুরি আক্রান্ত সাকিবের বিকল্প হিসেবেই দলে নেওয়া হয়েছে তাকে। তবে কারণগুলোর সবটাই বললেন নির্বচক হাবিবুল বাশার সুমন।

আজ শনিবার মিরপুরে গণমাধ্যমের কাছে সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, 'আমি ওকে অনেক আগে থেকেই দেখছি। আগে খুব রোমাঞ্চপ্রিয় ও আগ্রাসী ছিল। কিন্তু গত তিন বছরে ওর খেলা বেশ বদলে গেছে। এখন অনেক পরিণত। শেষ দুটি 'এ' দলের সফরে বেশ ভালো ব্যাট করেছে। বিশেষ করে আয়ারল্যান্ড সিরিজে দেখেছি, সে দলের প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যাট করে। প্রান্ত বদল করে খেলে। প্রয়োজনের সময় বড় শটও খেলে।'

এত বেশি বয়সে জাতীয় দলে প্রথমবারের মতো ডাক পাওয়া বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের বিরল ঘটনা। এব্যাপারে হাবিবুল বললেন, বয়স নয়, তাদের বিবেচনায় ছিল ফিটনেস। তার ভাষায়, 'ক্যারিয়ার শুরুর জন্য বয়সটা হয়ত বেশি হয়ে গেছে। আমরা এরকম খুব কম দেখি। তবে ওর ফিটনেস খুব ভালো। এখনকার বাস্তবতা বিবেচনায় খুব বেশিও নয় বয়স। সামনে অনেক সময় পড়ে আছে। আশা করি ও আমাদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবে।'

প্রায় ১৫ বছর ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার পর জাতীয় দলে প্রথমবার সুযোগ পেলেন ফজলে রাব্বি। দীর্ঘ পথচলায় ক্রিকেট ছেড়ে চাকরি করেছেন। আবার ফিরেছেন। একসময় আবার ক্রিকেট পাকাপাকিভাবে ছেড়ে দেওয়ার চিন্তা করেছেন। সেখান থেকে পারফর্মেন্স দেখিয়ে আজ জাতীয় দলে। ঠিক যেন রূপকথার গল্পের মতো। তাকে দিয়ে সাকিবের অভাব কিছুটা হলেও পূরণ হবে বলে ইঙ্গিত পাওয়া গেল হাবিবুলের কথায়।

তিনি বললেন, 'সাকিব নেই। আমাদের এমন একজন প্রয়োজন ছিল যে সাকিবের মতো না হলেও ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি একটু বোলিং করবে। রাব্বি এখন অনেক পরিণত ব্যাটসম্যান। পাশাপাশি ভালো ফিল্ডার, সঙ্গে স্পিন বল করতে পারে। ওর বোলিংও সম্প্রতি বেশ কার্যকর হয়েছে। এসবই ওকে দলে নেওয়ার ক্ষেত্রে বেশি প্রভাব ফেলেছে।'

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech