মিঠুন-মাহমুদউল্লাহর বিদায়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ

  

পিএনএস ডেস্ক : ১৩৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে খেলে যাচ্ছেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৬তম অর্ধশত করা টাইগার ওপেনার ইমরুল কায়েস।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১৪০ রান, ওভার ৩১। ইমরুল ৭৩ ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ০ রান করে মাঠে অপরাজিত আছেন।

এর আগে মিরপুর শেরে-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ম্যাচটি শুরু হয়েছে বাংলাদেশ সময় বেলা আড়াইটায়।

ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই লিটন কুমার আর আমিরুল কায়েস মিলে কিছুটা বিপজ্জনক ব্যাটিং করতে থাকেন। যার ফলশ্রুতিতে তৃতীয় ওভারের শেষ বলে একবার ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন লিটন। কাইল জার্ভিসের বলে কভার অঞ্চলে সিকান্দার রাজার হাতে ক্যাচ তুলে দেন তিনি।

কিন্তু এবার ভাগ্য ভালো বেঁচে যান লিটন। কারণ সিকান্দার রাজা ক্যাচটা সঠিকভাবে তালুবন্দী করতে পারেননি। বল মাটি স্পর্শ করে ফেলেছিল। এই বিপজ্জনক শর্ট থেকে শিক্ষা নেয়ার প্রয়োজন ছিল লিটনের।

কিন্তু তা না করে ৬ষ্ঠ ওভারেই উইকেট হারিয়ে বসেন তিনি। টেন্ডাই চাতারার বলে মিডউইকেটের ওপর দিয়ে চিপ করতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সহজ ক্যাচটা তুলে দেন চেপাস জুয়াইউর হাতে।

লিটন দাস ও অভিষেক হওয়া অলরাউন্ডার ফজলে মাহমুদ রাব্বির পর এবার বিদায় নেন মুশফিকুর রহীম। ইনিংসের ১৫ তম ওভারের শেষ বলে ক্যাচ আউট হন তিনি। মুশফিককে আউট করেন জিম্বাবুয়ে স্পিনার ব্রান্ডন মাভুতা।

এরপর মাঠে আসেন মোহাম্মদ মিথুন। ইমরুল কায়েসের সাথে মিলে শতরান পূরণ করে বাংলাদেশ। কিন্তু হাফসেঞ্চুরির কাছে গিয়ে আউট হন মিথুন। তিনি ৪০ বল খেলে ৩৭ রান করে জারভিসের বলে টেইলরের হাতে ধরা পরেন। আউট হবার আগে ৩টি ছয় ও ১টি চার মারেন মিথুন।

মিথুন আউট হবার পর ক্রিজে এসে রানের খাতা খোলার আগেই সেই টেইলরের হাতে আবার ধরা দেন মাহমুদুল্লাহ (০ রান)। ফলে ১৩৭ রানে ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর দলের হাল ধরতে মাঠে আসেন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু ১ রান করে সাজঘরে ফিরেন তিনিও। মিরাজকে সাজঘরের পথ দেখান আগের দুই উইকেট পাওয়া জারভিস।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech