প্রস্তুতি ম্যাচে সৌম্যর বাজিমাত

  

পিএনএস ডেস্ক : তার ব্যাটিং সামর্থ্য নিয়ে কারও কোনো সন্দেহ ছিল না। বাংলাদেশের ক্রিকেটের ভবিষ্যত হিসেবে যাদের ধরা হয়, সৌম্য সরকার তাদের মধ্যে অন্যতম। এজন্যই বারবার নির্বাচকেরা তার ওপর আস্থা রাখেন। ওয়ানডের পর টেস্ট দলেও ফেরানো হয়েছে এই হার্ডহিটারকে। প্রয়োজন ছিল ধারাবাহিকতার।

বদলে যাওয়া সৌম্য সরকার সেই ধারবাহিকতা দারুণভাবেই দেখিয়ে যাচ্ছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশের বিপক্ষে পরিণত এক ইনিংস খেলে প্রথম টেস্টের প্রস্তুতি সারলেন সৌম্য সরকার।

এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের শেষ দিনে ১০৩ বলে ১০ চার ও তিন ছক্কায় ৭৮ রান করেন সৌম্য। রান-বলের সমীকরণ বলছে যথেষ্টই আক্রমণাত্মক ছিলেন বাঁহাতি ওপেনার। তবে তার ব্যাটিং দেখে মনে ধরেছে কোচ এবং নির্বাচকদের। একজন পরিণত ব্যাটসম্যানের মতোই ভালো বল ছেড়ে দিয়েছেন, আবার বাজে বল পেলেই পাঠিয়েছেন সীমানার বাইরে। যেটা একজন টেস্ট ব্যাটসম্যানের জন্য জরুরি।

উইন্ডিজের পেসার কিংবা স্পিনাররা কেউই সৌম্যকে এদিন ভোগাতে পারেনি। বিপজ্জনক কেমার রোচকে দেখেশুনে খেলেছেন সৌম্য। অফস্ট্যাম্পের বাইরে বেরিয়ে যাওয়া লোভনীয় বল ছেড়ে দিয়েছেন সুন্দরভাবে। শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের ওভারে প্রথম বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন। একই ওভারে তার দর্শনীয় কাভার ড্রাইভ মুগ্ধ করে সবাইকে। স্পিনার রোস্টন চেসকে তো উড়িয়ে পাঠিয়ে দেন মাঠের বাইরে। পরের বলেই বাউন্ডারি। অফ স্পিনার শারমন লুইসকে জোড়া বাউন্ডারি। দেবেন্দ্রি বিশুও বাদ যায়নি তার ছক্কার হাত থেকে।

শেষ পর্যন্ত জোমেল ওয়ারিক্যানকে শর্ট লেগে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সৌম্য সরকার। কিন্তু তার ব্যাটিং চোখে লেগে রইল সবার। এখন ২২ তারিখ থেকে শুরু হতে চলা প্রথম টেস্টের আসল মঞ্চে নিজেকে প্রমাণের পালা এই ওপেনারের। সেই পরীক্ষার জন্য যে সৌম্য প্রস্তুত, আজকের প্রস্তুতি ম্যাচের ব্যাটিংয়েই তার প্রমাণ মিলে গেল।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech