বন্ধ হয়ে যেতে পারে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম

  

পিএনএস ডেস্ক : 'অবৈধ নির্মাণের' অভিযোগ উঠল ভারতের বিশ্বকাপ প্রাপ্তির স্টেডিয়াম মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়েতে। সেই সঙ্গে একাধিক কারণে শুধু এক-দুই টাকা নয়, প্রায় ১২০ কোটি টাকা জরিমানা হতে পারে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষের।

জানা গেছে, ১৯৭৫ সালে এসকে ওয়াংখেড়ে মুম্বাই শহরের বিখ্যাত এই স্টেডিয়ামটি নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিলেন। আদতে মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের নিজস্ব একটি ভেন্যু করার পরিকল্পনা থেকেই এই স্টেডিয়াম তৈরি করা হয়েছিল। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম যে জায়গায় তৈরি সেই সেটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে ৫০ বছরের জন্য ইজারা নিয়েছিল মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। সেই চুক্তি শেষ হয়ে গিয়েছে ২০১৮ সালে।

এরপরও স্টেডিয়াম তৈরির জায়গায় ফের অবৈধভাবে একটি ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। আর সেটি হল বিসিসিআই এর সদর দফতর।

এমসিএ-র বিরুদ্ধে রয়েছে একগুচ্ছ অভিযোগ। অবৈধভাবে স্টেডিয়াম সংস্কারের পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের সরকার স্পষ্ট জানিয়েছে, জরিমানার টাকা শোধ করতে না পারলে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম বন্ধ করে দিতে হবে।

এক কর্তা জানিয়েছেন, এমসিএ চুক্তি বাড়ানোর আবেদন করেছে। কিন্তু আগের তাদের বাজারদর মেনে বকেয়া সব পাওনা পরিশোধ করতে হবে। বিসিসিআই-এর সদর দফতর তৈরির অনুমতি ছিল কিনা সেটাও আমরা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech