যে কারণে নিষিদ্ধ হলেন আফগান ব্যাটসম্যান শাহজাদ!

  

পিএনএস ডেস্ক:আচরণবিধি লংঘন করায় আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি) মোহাম্মদ শেহজাদকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে। এই সময়ের মধ্যে তিনি পেশাদার কোনো ক্রিকেট খেলায় অংশ নিতে পারবেন না।

আফগানিস্তানের তারকা ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে না জানিয়ে পাকিস্তানের পেশোয়ারে গিয়ে সম্প্রতি অনুশীলন করেছেন। এ অপরাধে তাকে এক বছরের জন্য পেশাদার ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে এসিবি।

রবিবার (১৮ আগস্ট) এক বিবৃতিতে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড জানায়, দেশে অনুশীলনের সুন্দর ব্যবস্থা রয়েছে। অনুশীলন করার জন্য আফগান ক্রিকেটারদের দেশের বাইরে যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই।

মোহাম্মদ শাহজাদ শৈশবে পাকিস্তানের পেশোয়ারের শরণার্থী শিবিরে কাটিয়েছিলেন। আফগানিস্তানের অনেক ক্রিকেটারের মতো শাহজাদও পাকিস্তান সীমান্তের কাছে বেড়ে ওঠেন। পেশোয়ারেই বিয়ে করেছেন তিনি।

২০০৯ সালের আগস্টে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয় শাহজাদের। ঠিক পরের বছর টি-টোয়ন্টিতে অভিষেক হয় তার। টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর দুটি ম্যাচ খেলে আফগানিস্তান। দুই টেস্টেই জাতীয় দলে ছিলেন তিনি।

তবে সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপে মাত্র দুই ম্যাচ খেলার পর তাকে ইনজুরির অজুহাত দিয়ে বসিয়ে রাখা হয়। শুধু শাহজাদই নন, বিশ্বকাপের ঠিক আগে আফগানিস্তানের অধিনায়ক আসগর আফগানকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার পর পাশাপাশি বিশ্বকাপের প্রথম তিন ম্যাচে বসিয়ে রাখা হয়।

দলের পরাজয়ে কঠোর সামালোচনা হলে আসগর আফগানকে দলে ফেরানো হলেও শাহজাদকে আর ফেরানো হয়নি।

ক্রিকেট বিশ্লেষকদের অনেকেই মনে করছেন, দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের অভ্যন্তরীণ সমস্যার কারণেই ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে এমন সিদ্ধান্ত দিচ্ছে এসিবি।

জাতীয় দলের হয়ে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে ৭টি সেঞ্চুরি ও ২৬টি ফিফটির সাহায্যে ১৫১ ম্যাচে ৪ হাজার ৭৩২ রান করেন মোহাম্মদ শেহজাদ।


পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech