ব্র্যাডম্যানকেও টপকে গেলেন কোহলি

  

পিএনএস ডেস্ক:বিশাখাপত্তম টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। শুক্রবার (১১ অক্টোবর) পুনে টেস্টের দ্বিতীয় দিনে চায়ের বিরতির পর ক্যারিয়ারের সপ্তম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তাতেই স্যার ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যানের ৬৯৯৬ রানকেও টপকে গেলেন তিনি। টেস্টে সাত হাজার রানেও পৌঁছে গেলেন কোহলি।

এদিন সকালে টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৬তম শতরানে পৌঁছেছিলেন কোহলি। চলতি বছরে যা ছিল তার প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি। সেখানেই না থেমে আরও বড় ইনিংসের লক্ষ্যে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ দেখাচ্ছিল তাকে। চার উইকেটে ৪৮৩ রান উঠে গিয়েছে স্কোরবোর্ডে। রবীন্দ্র জাদেজার সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন পঞ্চম উইকেটের জুটিতে ১শ’র বেশি রান যোগ করেছেন কোহলি। জাদেজা খেলছেন ২৯ রানে।

সকালে দিনের প্রথম সেশনে কোনও উইকেট হারায়নি ভারত। মধ্যাহ্নভোজের বিরতির পর ৫৯ রানে ফেরেন আজিঙ্ক রাহানে। তার আগে চতুর্থ উইকেটের জুটিতে ১৭৮ রান যোগ করে কোহলি-রাহানে জুটি। চায়ের বিরতির সময় চার উইকেটে ৪৭৩ রান উঠে স্কোরবোর্ডে। কোহলি খেলছিলেন ১৯৪ রানে। সঙ্গে ছিলেন রবীন্দ্র জাদেজা (২৫)।

সকালে তিন উইকেটে ২৭৩ নিয়ে শুরু করেছিল ভারত। দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান কোহালি (৬৩) ও রাহানে (১৮) শুরু করেছিলেন সতর্কভাবে। প্রোটিয়া পেসাররা দ্বিতীয় নতুন বলে উজাড় করে দিলেও ভাগ্যের সাহায্য পাননি। ফিলান্ডারের বলে কোহালির খোঁচা একবার উইকেটকিপারের বাড়ানো হাতের নাগাল এড়িয়ে যায়। রাহানের খোঁচাও একবার ফিল্ডারের সামনে পড়ে। ৮৬ রানে থাকার সময়ও কোহালির ব্যাট ছুঁয়ে দ্বিতীয় স্লিপের পাশ দিয়ে বেরিয়ে যায় বল। তার আগে কেশব মহারাজের দিনের প্রথম বলে রাহানের বিরুদ্ধে এলবিডব্লিউয়ের আবেদন ওঠে। ডিআরএস নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু বল লেগস্টাম্প লাইনের বাইরে পড়ায় বেঁচে যান রাহানে।

১৯৮ রানে তৃতীয় উইকেট পড়েছিল ভারতের। ১০৮ করে ফিরেছিলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। অবিচ্ছিন্ন চতুর্থ উইকেটে কোহালি-রাহানে দেড়শ’র বেশি রান যোগ করে ফেলেছেন। কোহলি আবার অন্য এক কীর্তিও করে ফেললেন এদিন।

টেস্টে মোট রানে টপকে গেলেন দিলীপ বেঙ্গসরকরকে (৬৮৬৮ রান)। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে মোট রানে তিনি এখন সপ্তম। শচিন টেন্ডুলকার (১৫,৯২১), রাহুল দ্রাবিড় (১৩,২৬৫), সুনীল (১০,১২২), ভিভিএস লক্ষ্মণ (৮৭৮১), বীরেন্দ্র শেবাগ (৮৫০৩), সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের (৭২১২) পরই কোহলি।

বিশাখাপত্তনমে প্রথম টেস্ট দাপটে জিতে সিরিজে ১-০ এগিয়ে রয়েছে ভারত।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech