শুরুতেই চাপে বাংলাদেশ

  

পিএনএস ডেস্ক : উমেশ যাদবের বুলেট গতির একেকটা বল থামাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছিল ইমরুল কায়েসকে। ওপেনিংয়ে নামার পর থেকেই ব্যাটে-বলের সংযোগটা সেভাবে চোখে পড়েনি। শেষমেশ ব্যক্তিগত ৬ রানের মাথায় থামলেন ইমরুল। সেই যাদবের বলে থার্ড স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সাজঘরে। এরপর সাদমানও একই পথ ধরেন। ইশান্ত শর্মার সুইংয়ে পরাস্ত হন পুরোপুরি। দ্রুত দুই ওপেনারকে খুইয়ে শুরুতেই চাপে পড়ল বাংলাদেশ।

এর আগে ইন্দোরে সিরিজের প্রথম টেস্টে টস জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলনেতা মুমিনুল হক। ভারতীয় কন্ডিশনে টেস্টে ভালো করতে হলে বোলিং আক্রমণটা হওয়া চাই যুতসই। বাংলাদেশ অবশ্য কোনো বিভাগে আলাদা করে গুরুত্ব দেয়নি। বোলিংয়ে স্পিন আর পেসের অনুপাতটা ২:২। অর্থাৎ দুইজন পেসারের সঙ্গে দুইজন স্পিনার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে টিম বাংলাদেশ।

ধারেভারে বাংলাদেশ থেকে অনেকটা এগিয়ে ভারত। আর ম্যাচটা যখন ভারতের ঘরের মাঠে তখন তো আরও ভয়। অতীত পরিসংখ্যানই তেমন কথা বলছে। নিজেদের মাঠে ২০১৩ সালের পর ৩২ টেস্ট খেলে ২৬টিতেই জিতেছে ভারত। যার মধ্যে আবার ৫টা ড্র আর একটা মাত্র হার। তাছাড়া টেস্টে ভারতের বিপক্ষে আগে ৯টি ম্যাচে অংশ নিয়েছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে ৭টি হেরেছে আর বাকি দুই ম্যাচ হয়েছে ড্র।

হলকার স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া ভারত ও বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট আরেকটা কারণে একটু বেশিই স্পেশাল। কেননা এই ম্যাচ দিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে অভিষেক হলো টাইগারদের। সেই সঙ্গে ক্যাপ্টেন হিসেবে মুমিনুলও প্রবেশ করলেন টেস্টের এই নতুন যুগে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech