পাপন ০ : ৩ মনি

  

পিএনএস ডেস্ক: বাংলাদেশ এভাবে হেরে যাবে, ভাবতে অবাক লাগছে অনেকের। ঘোষণাটা আসার পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড়। সিংহভাগ ক্রিকেটপ্রেমীরা রাগ ঝাড়ছেন বিবিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের ওপর।

ক্রিকেটবোদ্ধারা বলছেন এটা স্রেফ পরাজয়। ৭১ এর যুদ্ধে যেখানে বীরের বাঙালি মাথা নোয়ায়নি পাকিস্তানের সামনে। এবার ক্রিকেট কূটনীতিতে হলো তার উল্টোটা। মনে হচ্ছে এই ম্যাচটা পিসিবি প্রধান ইহসান মনি ৩-০ ব্যবধানে জিতে নিল!

এতদিন যেখানে খোদ বিসিবি প্রধানই জোর গলায় বলেছেন পাকিস্তানে একবার যাওয়াও বিপদজনক। এখন কি-না সেই পাকিস্তানেই তিন তিনবার যাবে টিম বাংলাদেশ।

তবে কী পাকিস্তানের কাছে ক্রিকেট কূটনীতিতে হেরেই গেল বাংলাদেশ? তেমনি ইঙ্গিত দিলেন বাংলাদেশের সিনিয়র ক্রীড়া সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রনি।

নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, ‘সবচেয়ে দুঃখজনক, এই সরকারের সময় তিন দফায় পাকিস্তানে যাচ্ছে বাংলাদেশ। স্রেফ কূটনৈতিকভাবে হেরে। জিল্লুর রহমান, আইভি রহমানের মতো দুজন ব্যক্তিত্বের সন্তান যখন বোর্ড প্রধান, তখন এভাবে পাকিস্তানের কাছে টেবিলের খেলায় হেরেছে বাংলাদেশ। দুঃখজনক। লজ্জাজনক।’

তিনি একা নন, এমন অনেকেই এই সফর নিয়ে এখন প্রশ্ন তুলেছেন। কেউ বলছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে যেখানে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারও একবার যেতে ভাবছেন চারবার, ওই পাকিস্তানে শেষ পর্যন্ত তাদের তিনবার পাঠাবে বিসিবি।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে পাকিস্তান সফর নিয়ে জল কম ঘোলা হয়নি। দফায় দফায় বিসিবি আর পিসিবির নানা প্রস্তাবের কোনোটাই টেকেনি। শেষমেশে সমাধানের খোঁজে মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুবাইয়ে আইসিসি গভর্নেন্স কমিটির সভার ফাঁকে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের সঙ্গে আলোচনা করেন পিসিবি সভাপতি এহসান মনি। আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহরের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের বোর্ড এই সফর নিয়ে একমত হয় যে, পাকিস্তানে তিন দফায় তিন সংস্করণই খেলবে বাংলাদেশ।

পরে আনুষ্ঠানিকভাবে পিসিবির পক্ষ থেকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি জানানো হয়, আগামী ২৪, ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি লাহোরে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। ওই সিরিজ খেলে দেশে ফিরে ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে টেস্ট খেলতে দল আবার যাবে পাকিস্তানে। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ হবে রাওয়ালপিণ্ডিতে।

বাংলাদেশের তৃতীয় দফার সফর এপ্রিলে। ৩ এপ্রিল করাচিতে একটি ওয়ানডে খেলবে দুই দল। তার পর একই শহরে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আরেকটি টেস্ট ৫ এপ্রিল থেকে।


পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন