সৌদিতে চালু হচ্ছে নারী ফুটবল লিগ

  

পিএনএস ডেস্ক: অতি-রক্ষণাত্মক দেশ হিসেবে পরিচিত সৌদি আরবে চালু হচ্ছে নারী ফুটবল লিগ। যেটাকে নারীদের প্রতি দেশটির কঠোর রীতি-নীতির শিথিলতার নতুন এক সংযোজন হিসেবেই দেখছে বিশ্ব।

এতোদিন জনসমক্ষে খেলাধুলায় অংশ নেয়ায় কঠোর নিষেধাজ্ঞায় ছিলো দেশটির মেয়েরা। কিন্তু মেয়েদের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ইভেন্টে অংশ নেয়ার জন্য সৌদি আরবকে চাপ দিতে থাকে বিভিন্ন ক্রীড়া সংস্থা। এরই অংশ হিসেবে ২০১২ অলিম্পিকে নারী অ্যাথলেট পাঠিয়েছিলো দেশটি।

নারীদের ফুটবল লিগ চালুর সিদ্ধান্ত দেশটিতে লিঙ্গ বৈষম্য কমানোর সর্বশেষ উদ্যোগ। সৌদি স্পোর্টস ফর অল ফেডারেশনের সভাপতি প্রিন্স খালেদ বিন আলওয়ালিদ বিন তালাল আল সৌদ বলেছেন, সৌদি নারী ফুটবল লিগের সূচনা আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ, আমাদের স্বাস্থ্য, আমাদের যুবসমাজ এবং প্রতিটি অ্যাথলেটকে তাদের পুরোপুরি সক্ষমতার স্বীকৃতি এবং লালনপালনের জন্য দেখার উচ্চাকাঙ্ক্ষার জন্য আরো একটি বড় লাফ।

নারী বিশ্বকাপে কখনোই সৌদি আরব থেকে নারী ফুটবল দল অংশ নেয়নি। তবে গত বছর আঞ্চলিক একটি ফুটসাল প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় দেশটির মেয়েরা। বিশ্ব ফুটবলে সৌদি নারীদের অংশগ্রহণ নিষিদ্ধ হওয়ার মূল কারণ ছিলো ফিফার আইন। ২০০৭ সালে নারী ফুটবলারদের হিজাব ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিলো ফিফা। যদিও ২০১২ সালে সেটা উঠিয়ে নেয়া হয়।

নতুন এই লিগ দেশটির জাতীয় ফুটবল ফেডারেশনের অংশ নয়। বরং এটিতে আঞ্চলিক দলগুলো অংশ নেবে এবং প্রতিযোগিতার মাধ্যমে চ্যাম্পিয়ন নির্বাচিত হবে। তারা নকআউট পর্বে খেলবে এবং ওয়ার্ল্ড ফুটবল লিগের চ্যাম্পিয়ন্স কাপ খেলবে। যেটার প্রাইজমানি হবে ৫ লাখ সৌদি রিয়াল।

উদ্বোধনী আসরের বেশিরভাগ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে রিয়াদ, জেদ্দাহ ও দাম্মামে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন