জাতীয় নারী ফুটবল দলের অধিনায়কের বাড়িতে হামলা, আহত ৩

  

পিএনএস ডেস্ক : পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুনসহ সাতক্ষীরায় তার পরিবারের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এতে আহত হয়েছেন সাবিনা খাতুন, তার বোন সালমা খাতুন ও বাবা সৈয়দ আলী। বোন সালমা খাতুনের অবস্থা গুরুতর। তাকে সদর হাসপাদালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যায় শহরের পলাশপোল সবুজবাগে তার বাড়ির সামনে প্রতিপক্ষরা এ হামলার চালায়।

এ ঘটনায় সবুজবাগ এলাকার ইমন হোসেন ও লতা বেগম নামের দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এদিকে ঘটনার রাতেই সাবিনার বোন শিরিনা খাতুন বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলার অপর আসামিরা হলেন- একই এলাকার জাফর গাজী ও সোহান গাজী।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে সাতক্ষীরা শহরের সবুজবাগ এলাকায় বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের বাড়ির সামনে প্রতিবেশী ইমনের নেতৃত্বে চার জন রড ও লাঠি-সোটা নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। সাবিনার বাবা সৈয়দ আলী বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসতেই তাকে কিল, চড় ও ঘুষি ও লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকে। এ সময় ফুটবলার সাবিনা ও সালমা তার বাবাকে ঠেকাতে আসলে তারা তাদের উপরও হামলা চালায়।

এ ঘটনায় আহত সাবিনা ও বোন সালমাকে স্থানীরা উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রাতেই সাবিনার বোন শিরিনা খাতুন বাদী হয়ে চার জনকে আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে অভিযান চালিয়ে ইমন হোসেন ও লতা বেগম নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পিএনএস/ জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন