স্পন্সরের খোঁজে বিসিবি

  

পিএনএস ডেস্ক : করোনাভাইরাসের প্রভাবে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ আছে দেশের সব ধরণের খেলা। এমন দুঃসময়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) খুঁজছে নতুন দীর্ঘমেয়াদী স্পন্সর। কেননা পুরোনো স্পন্সর ইউনিলিভারের সঙ্গে বিসিবির চুক্তি জানুয়ারীতে শেষ হয়েছে। তারা চুক্তি বাড়াতেও ইচ্ছুক নয়।

ইউনিলিভারের সঙ্গে চুক্তি শেষ হবার পরপরই দুই বছরের জন্য ৫০ কোটি টাকা মূল্যের টিম স্পন্সরশিপ আহ্বান করে বিসিবি। কিন্তু তারা দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেনি কোনো স্পন্সরের। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অন্তর্বর্তীকালীন স্পন্সর ছিল আকাশ ডিটিএইচ। কিন্তু বিসিবি চাইছে দীর্ঘমেয়াদী স্পন্সর। তাই মরিয়া হয়ে একটি নতুন জাতীয় দলের স্পন্সর খোজার পাশাপাশি নতুন ব্রডকাস্টার নিয়োগের জন্য সন্ধান করছে বোর্ড। কেননা চলতি এপ্রিলে গাজী টিভির সাথে চুক্তি শেষ হতে যাচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে বিসিবির অর্থ বিভাগের প্রধান ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, আমরা জানি যে এই মুহুর্তে স্পন্সর এবং ব্রডকাস্টার পাওয়া খুব কঠিন। তবে এটি মূলত চলমান করোনভাইরাস মহামারীর কারণেই অন্য যে কোনও কিছুর চেয়ে বেশি নয়। আমরা সবকিছু স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসার পরপরই স্পন্সর পেতে আশাবাদী।

বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশের হোম সিরিজ আছে দুইটি। দুইটিই আবার টেস্ট সিরিজ হওয়ায় এই দুই সিরিজ মাঠে না গড়ালেও বিসিবির খুব বেশি ক্ষতি হবে না। অন্যান্য বোর্ডের চেয়ে এদিক থেকে কিছুটা স্বস্তিতেই আছে বাংলাদেশের বোর্ড। তবে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির দ্রুত উন্নতি না হলে স্থগিত হতে পারে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপের মত আসর, যা বড় ধরনের লোকসানের মুখে ফেলবে বিসিবিকে।

জাতীয় এক দৈনিকে ইসমাইল হায়দার চৌধুরী মল্লিক বলেন, ‘বিশ্বজুড়ে অর্থনৈতিক মন্দার কারণে আমরা আশঙ্কা করছি, বোর্ডের বার্ষিক আয়ের ২০-২৫ ভাগ কমে যেতে পারে, অর্থের দিক থেকে যা ৪০ কোটি টাকার সমান। বিসিবি প্রতি বছর আইসিসির কাছ থেকে ১১ থেকে ১৩ মিলিয়ন ডলার পায় (প্রায় ১০০ কোটি টাকা)।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন