আমিরের সমর্থনে যা বললেন আফ্রিদি

  


পিএনএস ডেস্ক: গত ১৭ ডিসেম্বর হুট করেই সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানান পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির। হঠাৎ অবসর ঘোষণার পেছনে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) হঠকারিতাকে দায়ী করেছেন তিনি।

আমিরের অবসর ও বোর্ডকে দায়ী করায় পাল্টা আমিরকে একহাত নিয়েছেন পিসিবির কর্তা ব্যক্তিরাও। তবে বিষয়টা আরও ভালোভাবে সামলানো যেত বলে মনে করেন সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।

লাহোরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে আফ্রিদি বলেন, কোচ আর ফাস্ট বোলারদের মধ্যে ঝামেলা পাকিস্তান ক্রিকেটের অনেক 'পুরনো রোগ'। উদাহরণ দিতে গিয়ে তিনি ওয়াকার ইউনিসের সঙ্গে তার ঝগড়ার উদাহরণ তুলে ধরেন। আফ্রিদির মতে, আমিরকে ডেকে ঝামেলা মিটিয়ে ফেলা উচিত ছিল পিসিবির। তিনি বলেন, 'দেশের স্বার্থে তাদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

এ নিয়ে পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বলেন, ‘তার (আমির) কোনো আকাঙ্ক্ষা বা অভিপ্রায় নেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার প্রতি এবং তাকে ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক ম্যাচের জন্য বিবেচনা করা উচিত হবে না।’

নিজের অবসরের প্রসঙ্গে আমির বলেন, ‘আমি এখন ক্রিকেট ছাড়ছি কারণ আমি মানসিকভাবে অত্যাচারিত হচ্ছি। আমি মনে করি না, এমন অত্যাচার সহ্য করতে পারবো। যে সময়টায় দলে ছিলাম, সেই ২০১০ থেকে ২০১৫ সাল পযর্ন্ত আমাকে অনেক অত্যাচার সহ্য করতে হয়েছে। আমাকে অসংখ্যবার বলা হয়েছে, পিসিবি আমার ওপরে অনেক বিনিয়োগ করেছে। আমার ওপর সদয় ছিলেন কেবল এমন দু’জন লোকের কথা বলব: নাজাম শেঠি (সাবেক পিসিবি চেয়ারম্যান) এবং শহীদ আফ্রিদি (পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক)।'

পাকিস্তানের হয়ে আমির ৩৬টি টেস্ট, ৬১টি ওয়ানডে এবং ৫০টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। সব মিলিয়ে ২৫৯টি আন্তর্জাতিক উইকেট নিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি তাকে দেখা গেছে লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগের (এলপিএল) উদ্বোধনী সংস্করণে। আমিরকে পাকিস্তানের জার্সিতে শেষবার দেখা গেছে চলতি বছরের শুরুতে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে। নিউজিল্যান্ড সফরে থাকা মিসবাহ-উল-হকের দলে জায়গা হয়নি তার। মূলত এরপরই অবসরের ঘোষণা দেন তিনি।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন