মায়ের চিকিৎসায় গাড়ি বেচে দিলেন ক্রিকেটার শাহাদাত!

  

পিএনএস ডেস্ক: শাহাদাত হোসেন রাজিব। বাংলাদেশ জাতীয় দলের ডানহাতি পেস বোলার। গতি আর বাউন্সে যিনি ব্যাটসম্যানদের সামনে আতঙ্ক হয়ে উঠেন সেই রাজিব এখন গর্ভধারিণী মাকে বাঁচাতে লড়ছেন। সতীর্থ ক্রিকেটারের গায়ে হাত তোলার অভিযোগে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞায় থাকা নারায়ণগঞ্জের ছেলে রাজিব মায়ের চিকিৎসার জন্য নিজের গাড়িটিও বিক্রি করে দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রাজিবের মা স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত। সম্প্রতি একটি ভিডিও সাক্ষাৎকারে রাজিব নিজেও তেমনটি জানিয়েছেন।

ওই সাক্ষাৎকারে রাজিবের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, এ মুহূর্তে তার চাওয়া কী- উত্তরে এই গতি বোলার বলেন, ‘আমার এখন একটাই চাওয়া, আমি ক্রিকেটে ফিরতে চাই। হয়তো আর বেশিদিন খেলতে পারবো না। এখন বয়স ৩৬ হলে বড়জোর আর ৪-৫ বছর খেলতে পারবো।’

পরক্ষণেই তিনি বলেন, ‘আম্মুর অবস্থা খুবই খারাপ, এজন্যও খেলতে চাই। এখন আমি অনেক ফিট আছি। পেস আগের মতোই আছে। বোর্ড যদি আমাকে অনুমতি দেয় তাহলে আবার আগের মতো মাঠে ফিরতে পারবো।’

রাজিব জানান, ২০১৭ সালে তার আম্মু ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তারা জানতে পারেন, তার মায়ের জরায়ু ক্যান্সার। তখন চিকিৎসায় অনেকটা সুস্থও হন। করোনাকালীন লকডাউনের সময় আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন। প্যারালাইজড হয়ে যান। বর্তমানে ক্যান্সার থার্ড স্টেজে আছে।

মায়ের চিকিৎসার ব্যয় বহন করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে জানিয়ে ওই সাক্ষাৎকারে রাজিব বলেন, ‘আমার এক ভাই জার্মানি থাকে, সেখান থেকে হেল্প করছে। আমার একটি গাড়ি ছিল, আম্মুর চিকিৎসার জন্য সেটি বিক্রি করে দিয়েছি। বিসিবি যদি আমাকে আবার সুযোগ দেয় তাহলে আমি মায়ের পাশে দাঁড়াতে পারবো।’

রাজিব বলেন, ‘আমার তো আর কোনও পেশা নেই। দুই বছর বসে থাকার কারণে কষ্ট বাড়ছে। বিসিবি, কোয়াবের কাছে ক্ষমা চেয়েছি। ইনশাল্লাহ, উনারা বিষয়টি বিবেচনা করে একটি ব্যবস্থা করবেন।’

ক্যারিয়ারে বল হাতে ৩৮ টেস্টে ৭১ উইকেট, ৫১ ওয়ানডেতে ৪৭ উইকেট ও ৬টি টি-টোয়েন্টিতে ৪ উইকেট আছে রাজিবের ঝুলিতে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন