হোপ’র প্রথম ছবিতেই সবচেয়ে বড় আগ্নেয়গিরির ছবি

  

পিএনএস ডেস্ক : সংযুক্ত আরব আমিরাতের মহাকাশযান ‘হোপ’ পৃথিবীতে মঙ্গল গ্রহের প্রথম ছবি পাঠিয়েছে। আজ রোববার আমিরাত থেকে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, সূর্যের আলোয় আলোকিত হচ্ছে মঙ্গল গ্রহ। এছাড়া গ্রহটির উত্তর মেরু ও সবচেয়ে বড় আগ্নেয়গিরি অলিম্পাস মন্সও ছবিতে চোখে পড়ে।

গত মঙ্গলবার লাল রঙা গ্রহটির কক্ষপথে মহাকাশযানটি প্রবেশ করে। একটি প্রশস্ত কক্ষপথে হোপকে স্থাপন করা হয়েছে যেন এটি মঙ্গলের আবহাওয়া ও জলবায়ু নিয়ে গবেষণা করতে পারে। ফলে প্রথম আরব দেশ হিসেবে মঙ্গলে বৈজ্ঞানিক উপস্থিতি তৈরি করে ইতিহাস সৃষ্টি করে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

হোপকে যেখানে স্থাপন করা হয়েছে, সেখানে সম্পূর্ণ গ্রহের গোলাকার অবস্থাও এটি দেখা যাবে। হোপের ইএক্সআই উপকরণ থেকে ছবিটি তোলা হয়েছে। মঙ্গলপৃষ্ঠ থেকে ২৪ হাজার ৭০০ কিলোমিটার দূরত্ব থেকে গত বুধবার গ্রিনিচ মিন সময় ২০:৩৬ মিনিটে ছবিটি তোলা হয়। অর্থাৎ মঙ্গলের কক্ষপথে ঢোকার একদিন পরেই ছবি তুলেছে হোপ।

ছবিতে উপরে বাম দিকে মঙ্গলের উত্তর মেরু চোখে পড়ে। মাঝখানে সূর্যের আলোয় ভোরবেলা আলোকিত হতে থাকা মঙ্গল। সেখানে অলিম্পাস মন্সকেও দেখা যাচ্ছে যা শুধু মঙ্গলেরই নয়, সমগ্র সৌরজগতের বৃহত্তম আগ্নেয়গিরি। রাত ও দিনের যে সীমানা চোখে পড়ছে সেটি কথিত ‘টার্মিনেটর’।

ছবিতে পাশপাশি থাকা তিনটি আগ্নেয়গিরি হল- অ্যাসক্রেয়াস মন্স, প্যাভোনিস মন্স ও আর্সিয়া মন্স। এছাড়া পূর্ব দিকে মঙ্গলের গিরিখাত ভ্যালেস ম্যারিনারিস দেখা যাচ্ছে যা মেঘে ঢাকা অবস্থায় রয়েছে।

হোপ মিশনের টুইটার অ্যাকাউন্টের পোস্টে বলা হয়েছে, ‘হোপ মহাকাশযানের মঙ্গলের প্রথম ছবি পাঠানো আমাদের ইতিহাসের একটি অনন্য মূহূর্ত এবং উন্নত দেশের মহাকাশ অভিযানে সংযুক্ত আরব আমিরাতের যোগ দেয়াকে এটি চিহ্নিত করছে। আমরা আশা করি এই মিশনের মাধ্যমে মঙ্গলের নতুন কিছু আবিষ্কার হবে যাতে উপকৃত হবে মানবজাতি।’

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন