কাজী ফার্মের শ্রমিকরা টালবাহনায় অভিযোগ এলাকাবাসির

  

পিএনএস,নীলফামারী : নীলফামারী জলঢাকা উপজেলাধীন ধর্মপাল ইউনিয়নের রশীদপুর নামক এলাকায় অবস্থিত কাজী ফার্ম। ফার্মটি ২০০৮ সাল থেকে চালু হলে এলাকার শ্রমজীবি প্রায় ২৫০ জন গরীব মানুষ শ্রম জীবিকা নির্বাহ করে আসে। রশীদপুর এলাকা ছাড়াও বিভিন্ন এলাকার মানুষ এই ফার্মে কাজ করে। ফার্মের দূর্গন্ধ সামন্য বাতাস বইলে দ্বিগুন গন্ধ এলাকায় চারপাশে ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন মহলের অভিযোগ করে কর্তৃপক্ষের কাছে।

ফার্ম কর্তৃপক্ষ রশীদপুর গ্রামের বেশি ভাগ শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে, এবং সুনামের সাথে কাজ করে আসে। গত ২০০৮ সালে উপজেলা কয়েকজন শ্রমিক নেতা এসে, বিভিন্ন কলাকৌশলে আমজাদ হোসেনকে সভাপতি ও মনিরুজ্জামনকে সাধারণ সম্পাদক করে ২ বছরের একটি পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করে দেয়। এভাবে ২ টাইম ২০১২ সাল পর্যন্ত উক্ত কমিটি কাজ করে আসে। এরেই মধ্যে ঐ নেতারা মোটা অঙ্কে টাকার বিনিময় ফয়জুল ইসলামকে সভাপতি ও মোকছেদ আলীকে সাাধারণ সম্পাদক করে ৩৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি দিলে সেই থেকে কোন্দলের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি স্থানীয় সংসদ অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা এমপিকে অবগত করলে তিনি ইউপি চেয়ারম্যান জামিনুর রহমান, ইউপি সদস্য সামছুল হক ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমকে একটি তালিকা তৈরি করতে বলেন।

এলাকায় প্রায় ১ হাজার পরিবার বসবাস করে। তাদের মধ্যে আন্দোলনকারী ৩৫ শ্রমিক সহ ২৪১ জনের তালিকা তৈরি করে কর্তৃপক্ষকে জমা দেয়। বর্তমানে ৩৫ জনের মধ্যে ২২ জন কাজ করে আসছে। সরেজমিনে গেলে জানা যায়, নতুন তালিকা অনুযায়ী ধাপে ধাপে কাজ করিতেছে শ্রমিকরা।

কিন্তু কিছু অর্থন্বেষী কুচক্রি মহলের ষড়যন্ত্রে কতিত্ব সদস্য মোকছেদ আলীর কুপরামর্শে নুর মোহাম্মদ, ইলিয়াস ও মতিয়ার রহমানের পরিবারের ৩৫ জন লোকের নামে তালিকা করে আন্দোলন করে যাচ্ছে, যারা জীবনে কোন কাজই করে নাই তারা কীভাবে শ্রমিক হতে পারে বলে, আব্দুল মজিদ কেতু, ময়নুল ইসলাম ও তৈবর রহমান জানায়। এলাকাবাসির সূত্রে জানা যায়, অহেতুক ভাবে চেয়ারম্যান জামিনুর রহমানকে গালিগালাছ করে আসছে আন্দোলনকারীরা চেয়ারম্যান এব্যাপারে কিছু জানে না।

এ বিষয় ইউপি চেয়ারম্যান জামিনুর রহমান বলেন, আমি কাজী ফার্মের শ্রমিকদের বিষয়ে কিছুই জানি না। এমপি মহোদয় আমাকে বাছাই করে একটি তালিকা দিতে বলেছে, তারাও এই তালিকায় আছে।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech