আলোর পথে যাত্রায় ২০ নারী-পুরুষ

  

পিএনএস : মধ্যবয়সী শেফালি বেগম মঞ্চে উঠে এলেন। মাইকের সামনে গিয়ে ঘোষণা দিলেন- ‘আমি ভুল করেছি। আমি আর মাদক বেচতে চাই না। আমি নিজে বাঁচতে চাই, সমাজকে বাঁচাতে চাই। ’

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজশাহী মহানগরীর খড়বোনা এলাকায় মাদক ব্যবসা পরিত্যাগকারীদের পুনর্বাসন অনুষ্ঠানে শেফালি বেগম এমন ঘোষণা দেন।

রাজশাহীর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে শেফালি বেগমসহ মাদক ব্যবসা ছেড়ে দেওয়া ২০ জন নারী-পুরুষকে পুনর্বাসিত করা হয়। ফলে অন্ধকার ছেড়ে আলোর পথে যাত্রা শুরু করলেন তারা।

সম্প্রতি পুলিশের পক্ষ থেকে মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে ওই এলাকায় একটি সচেতনতামূলক সভা করা হয়। ওইদিন এলাকার বেশকিছু মাদক ব্যবসায়ী ব্যবসা ছাড়ার প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু তারা পুলিশের কাছে নিজেদের পুনর্বাসনের দাবি জানিয়েছিলেন। এরপরই বৃহস্পতিবার বিকেলে এই পুনর্বাসন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে চারজন নারীকে দেওয়া হয় একটি করে সেলাই মেশিন। আর এক ব্যক্তিকে দেওয়া হয় একটি ভ্যান।

এছাড়া বাকি ১৫ নারী-পুরুষকে দেওয়া হয় পাঁচ হাজার করে নগদ টাকা। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার শফিকুল ইসলাম তাদের হাতে এসব তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আরএমপির উপ-কমিশনার (পশ্চিম) একেএম নাহিদুল ইসলাম। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম-উল-আযীম, আরএমপির অতিরিক্ত কমিশনার সরদার তমিজ উদ্দিন আহমেদ, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি, পরিচালক, মাসুদুর রহমান রিংকু, রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হবিবুর রহমান প্রমূখ।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech