কমলনগরে গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম, শ্বশুর-দেবর আটক

  

পিএনএস, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে যৌতুকের দাবি ও দ্বিতীয় বিয়েতে বাধা দেওয়ায় এক সন্তানের জননী গৃহবধূ শারমিন সুলতানাকে (২৫) পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করেছে স্বামী, শ্বশুর ও দেবরসহ শশুর বাড়ির লোকজন। এঘটনায় শশুর ও দেবরকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক।

বুধবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৫ টায় এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল। এর আগে মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার চর কাদিরা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের চর ঠিকা গ্রামের আবদুর রব পিয়নের বাড়িতে (গৃহবধুর শশুর বাড়ি) এ ঘটনা ঘটে। আটকরা হলো শ্বশুর মোহাম্মদ উল্লাহ ব্যাপারি (৪৫) ও দেবর মো. রাসেল (২৭)।

গৃহবধূর ভাই দিদার ও স্বজনরা জানান, আট বছর আগে তার ছোট বোন শারমিন সুলতানার সাথে চর কাদিরা ইউনিয়নের চর ঠিকা গ্রামের মোহাম্মদ উল্লাহ ব্যাপারির ছেলে জিয়াদ হোসেন সবুজের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী সবুজকে যৌতুক দিয়ে দুইবার বিদেশ (দুবাই) পাঠায়। চাপ দিয়ে মোটরসাইকেল আদায় করে। সম্প্রতি সে দ্বিতীয় বিয়ে করে। গত কয়েকদিন থেকে আরও যৌতুক দাবি করে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দি¦তীয় স্ত্রীকে ঘরে তোলতে বাধা দেওয়া ও আরও যৌতুকের টাকা না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে গৃহবধূ সুলতানাকে শ্বশুর ও দেবর পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে। এসময় স্বামী সবুজ তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা চালায়। পরে স্থানীয়রা আহত গৃহবধূকে উদ্ধার করে কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

কমলনগর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. সাইদুর রহমান জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পেয়ে তাৎক্ষণিক শশুর ও দেবরকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলেছে।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল



 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech