বগুড়ার রাজনীতি ক্রমশ নির্বাচনমুখি, গণসংযোগে তৎপর

  

পিএনএস, বগুড়া: বগুড়ার রাজনীতিতে ক্রমশ নির্বাচন মুখি কর্মকান্ড লক্ষনীয় হয়ে উঠছে আর আগামী জাতীয় নির্বাচনে যারা দলের বা জোট মহাজোটের মনোনয়ন নিতে আগ্রহী তারা শুরু করে দিয়েছেন গণসংযোগ সহ সার্বিক তৎপরতা। চেষ্টা করছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকান্ডের মিডিয়া ফোকাসের মাধ্যমে কেন্দ্রের দৃষ্টি আকর্ষনের। বগুড়ার ৭টি আসনের যারা বর্তমান এমপি তারা চেষ্টায় আছেন আগামী নির্বাচনেও যেন তাদের দলীয় এবং জোটের মনোনয়ন অটুট থাকুক ।

আবার যারা গতবার মনোনয়ন পাননি , তারাও তৎপর হয়ে উঠেছেন যেন মনোনয়নের ‘ছিকা’ ( দড়িতে ঝোলানো ভান্ড ) তাদের কপালে ছিঁড়ে এসে তাদের কপালে জোটে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে , বিগত ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়ায় মহাজোটের পক্ষ থেকে বিশেষ রাজনৈতিক কৌশলের কারণে বগুড়ার ৭টি সংসদীয় আসনের মাত্র দুটিতে আওয়ামীলীগ প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়া হয় ।

এরা হলেন- বগুড়া-১ ( সারিয়াকান্দি - সোনাতলা) সংসদীয় আসনে আব্দুল মান্নান এবং বগুড়া-৫ ( শেরপুর - ধুনট ) আসনে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা আলহাজ্ব হাবিবর রহমান ওরফে এসপি হাবিব। অপরদিকে জাতীয় পার্টি বগুড়া-২ ( শিবগঞ্জ ) আসনে শরিফুল ইসলাম জিন্না, বগুড়া-৩ ( আদমদীঘি - দুপচাাঁচিয়া ) আসনে নুরুল ইসলাম তালুকদার, বগুড়া ৪ ( কাহালু - নন্দিগ্রাম ) আসনে নুরুল ইসলাম বাচ্চু, বগুড়া-৬ ( সদর ) আসনে নুরুল ইসলাম ওমর, বগুড়া-৭ ( গাবতলী - শাজাহানপুর )- আসনে এ্যাড. আলতাফ আলীকে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে মনোনয়ন দেয়া হয় । বগুড়া ৪ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী নুরুল ইসলাম বাচ্চু এতটাই দুর্বল ছিলো যে, লজ্জাজনক ভোটে জাসদের প্রার্থী রেজাউল করিম তানসেনের কাছে পরাজিত হন। সুত্রে জানা যায়, দলের স্বার্থের কথা বিবেচনায় এনে আগামীতে বগুড়ার ৭টি সংসদীয় আসনেই আওয়ামীলীগের মনোনয়ন দেওয়া হয়, সেই দাবী কেন্দ্রর কাছে করবে স্থানীয় আওয়ামীলীগ ।

তবে জোটের বৃহত্তর স্বার্থ বিবেচনায় মহাজোটের বড় শরিক জাতীয় পার্টির সভাপতি/সাধারণ সম্পাদকের এবং জাসদের জেলা সভাপতি রেজাউল করিম তানসেনের মনোনয়ন আগের মতোই অপরিবর্তিত থাকবে বলে সুত্রে জানা যায় । অপরদিকে আগামী নির্বাচন যে ফর্মেটেই হোকনা কেন বিএনপি আর গতবারের ভুলের পূণরাবৃত্তি ঘটাবেনা এই ধারণা থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় তৎপরতা শুরু করেছে জোরে শোরে। এছাড়া বগুড়ার ৭টি সংসদীয় আসনে বিভিন্ন দলের বিদ্রোহী এবং সতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতায় তাকবেন বলেও জানা গেছে ।


পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech